kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

দাওয়াই

এসিডিটি, না হার্ট অ্যাটাক— কখন চিন্তিত হবেন

ভূরিভোজন হয়েছে, বুক জ্বলা, কিন্তু হার্ট অ্যাটাক কি হতে পারে? হয়তো হার্টে রক্ত চলাচল কমে ব্যথা, যাকে বলি অ্যানজাইনা, নাকি সত্যি হার্ট অ্যাটাক? এ বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন অধ্যাপক ডা. শুভাগত চৌধুরী, সাবেক অধ্যক্ষ চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ

২৬ জুন, ২০২২ ০৯:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এসিডিটি, না হার্ট অ্যাটাক— কখন চিন্তিত হবেন

এসিডিটি আর হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ প্রায় এক রকম হতে পারে। অনেক সময় তফাত বোঝা কঠিন হয়। ডাক্তাররাও সমস্যায় পড়েন। তখন ইমার্জেন্সি দেখিয়ে বুক ব্যথার কারণ বের করা প্রয়োজন, প্রয়োজনে করতে হয় টেস্টও।

বিজ্ঞাপন

নিজের এ রকম হলে জরুরি কল করবেন বা যাবেন ইমার্জেন্সিতে, আকস্মিক বুক ব্যথা, কিছুক্ষণ পর চলে গেছে?

বুক জ্বলা আর হার্ট অ্যাটাকের উপসর্গ—দুটির ক্ষেত্রেই বুক ব্যথা, তবে ব্যথার ধরন ভিন্ন।

পার্থক্যগুলো

-    এসিডিটিতে বুক জ্বলে। অন্যদিকে হার্ট অ্যাটাক হলে বুকের মধ্যখানে বা বাঁ দিকে অস্বস্তি, মনে হবে চাপ বা মোচড় দিচ্ছে কেউ, নয়তো বুক ভরাট ভাব।

-    বুক জ্বালা-পোড়ার ব্যথা সাধারণত হয় আহারের পর, অন্যদিকে হার্ট অ্যাটাকে ব্যথা সাধারণত শুরু হয় হঠাৎ করেই।

-    এসিডিটিতে মুখে আসে টক স্বাদ, হার্ট অ্যাটাকে হতে পারে শ্বাসকষ্ট।

-    এসিডিটি হলে গলায় জ্বলুনি হয়, আর হার্ট অ্যাটাকে ব্যথা বা অস্বস্তি গ্রীবা, চোয়াল, পিঠ ও কাঁধে হয়। মূর্ছা যাওয়ার মতো অবস্থাও হয়।

কয়েকটি প্রশ্ন উত্তর খুঁজলে আরো স্পষ্ট হবে সব কিছু। যেমন—

কী করে উপসর্গ আরাম হলো?

এসিডিটি হলে উঠে বসলে আর এন্টাসিড খেলে আরাম হয়। চিত হয়ে শুলে আর সামনের দিকে নুয়ে বসলে হয় শোচনীয়। হার্ট অ্যাটাক হলে এন্টাসিড বা বসলে আরাম হয় না। কাজকর্মে হয় শোচনীয়।

শেষ কখন খেয়েছেন?

বুক জ্বলা হলে আহারের দু-এক ঘণ্টার মধ্যে হতে পারে উপসর্গ। কিছু সময় না খেলে এসিডিটির আশঙ্কা কম।

হার্ট অ্যাটাক হলে ব্যথা আহারের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়।

ব্যথা কি ছড়ায়?

বুক জ্বলা হলে ব্যথা যেতে পারে গলায়। হার্ট অ্যাটাক হলে ব্যথা যেতে পারে চোয়ালে, পিঠে বা বাহু বেয়ে নিচে।



সাতদিনের সেরা