kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ বৈশাখ ১৪২৮। ১০ মে ২০২১। ২৭ রমজান ১৪৪২

করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পর যেসব ব্যায়াম জরুরি

অনলাইন ডেস্ক   

২০ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:৪৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পর যেসব ব্যায়াম জরুরি

করোনা থেকে সেরে ওঠার পর শরীরে নানারকম সমস্যা দেখা দেয়। কারো কম, কারো-বা বেশি। একেকজনের একেকরকম উপসর্গ। এর মধ্যে ব্যায়াম করা কি উচিত? কী ধরনের ব্যায়াম করলে শরীরের উপকার হবে? এ ধরনের নানা প্রশ্ন ঘুরতে থাকে অনেকের মনে। চলুন জেনে নেওয়া যাক করোনাপরবর্তী ব্যায়াম কতটা উপকারী।

যেটা প্রথমেই মাথায় রাখতে হবে, সেটা হলো আপনার শরীর। যেহেতু একেক জনকে একেক রকম ভাবে আক্রমণ করছে, তাই নিজের শরীর নিজেকেই বুঝে নিতে হবে। ধরুন আপনার আগের তুলনায় এখন শারীরিক সমস্যা কম। অনেকটাই সুস্থবোধ করছেন। কিন্তু আরো কিছুদিন দেখুন অল্পতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন কি-না। সে ক্ষেত্রে খুব হালকা ব্যায়াম করতে পারেন। কিন্তু যদি ব্যায়াম করতে গিয়ে মনে হয়, শরীরের ওপর চাপ বেশি পড়ছে, তাহলে কিছুদিন বিশ্রাম নিন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নিতে পারেন। যদি ডাক্তার বলেন আপনি দিনে ব্যায়াম করতে পারেবন তবে জেনে নিন কি ধরনের ব্যায়াম করা যাবে।

বাড়ির মধ্যেই কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করে দেখে নিন কতটা হাঁপিয়ে যাচ্ছেন। যদি মনে হয় পারবেন, তাহলে স্পট ওয়াকিং বা এক জায়াগায় হাঁটতে পারেন। তবে সেটা ১০-১২ মিনিটের বেশি নয়।

সিটিং মার্চ
যদি দেখেন হাঁটতে কষ্ট হচ্ছে, তাহলে একটা চেয়ারে বসুন। এক জায়গায় বসেই হাঁটার ভঙ্গিতে পা চালান। এটাকে বলে সিটিং মার্চ।

পায়ের পাতার ব্যায়াম
টিপ-টো এক্সারসাইজ বা পায়ের পাতার ব্যায়াম বসে বসেই করতে পারবেন। পায়ের পাতা টানটান করুন। গোল করে ঘোরান। প্রথম ডান ডিকে দিয়ে গোল করে, তারপর বাম দিক দিয়ে। পায়ের আঙুল টানটান করুন। দাঁড়িয়ে পায়ের আঙুলে ওপর ভর দিয়ে উঁচুতে ওঠার চেষ্টা করুন। সিড়ির কয়েক ধাপ ওঠানামা করতে পারেন। সিড়ির ধাপে পা রেখে হাটু ভাঁজ করে পা স্ট্রেচ করার ব্যায়মগুলোও করে দেখে নিন আপনার কতটা অসুবিধা হচ্ছে।

স্ট্রেচিং
হালকা স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ করতে পারেন। হাত, পা, হাঁটু, শরীরের ওপরের অংশ, শরীরের নিচের অংশ স্ট্রেচ হয়- এমন ধরনের সহজ ব্যায়াম করুন। হাত সামনের দিকে বা ওপর দিকে তোলা-নামানোর ব্যায়মগুলো করতে পারেন। এতে বেশি ক্লান্তি আসবে না।

যোগ ব্যায়াম
যোগ ব্যায়াম শরীরে পাশাপাশি মনের সুস্থাতার জন্যেই কার্যকরী। ১৫-২০ মিনিট সহজ কিছু আসন এবং নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়ামগুলো করতে পারেন।
সূত্র : আনন্দবাজার



সাতদিনের সেরা