kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বজ্রপাতে না ফেরার দেশে কৃষক, হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন কৃষাণী

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৮:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বজ্রপাতে না ফেরার দেশে কৃষক, হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন কৃষাণী

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় সবজি ক্ষেতে চারা রোপণ কালে বজ্রপাতে তারাজুল ইসলাম (৪২) নামের এক কৃষক মারা গেছেন। এঘটনায় ফরিদা ইয়াসমিন (৩৫) নামের এক কৃষাণী আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার মুকুন্দপুর ইউনিয়নের ভেলার পাড় উত্তর পাড়া গ্রামের মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তারাজুল ইসলাম ওই এলাকার নওশাদ আলীর ছেলে এবং আহত কৃষাণী ফরিদা ইয়াসমিন একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের স্ত্রী। স্থানীয় মুকুন্দপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে মুকুন্দপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম জানানা, মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে ভেলারপাড় উত্তর পাড়া মাঠে বেশ কয়েক জন কৃষক কপি (সবজি) ক্ষেতের চারা রোপণ করছিলেন। বিকেল চারটার দিকে বিকট শব্দে বজ্রপাত ঘটে। এতে তারাজুল ইসলাম ও ফরিদা ইয়াসমিন গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা দুজনকেই বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাব্বির আহম্মেদ তারাজুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ফরিদা ইয়াসমিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিতিৎসাধীন রয়েছেন।

জানতে চাইলে বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বলেন, ‘দুপুরে মাঠে সবজি চারা রোপণ করার সময় বিকট শব্দে বজ্রপাত ঘটলে তারাজুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি মারা যান। এ ঘটনায় এক নারী কৃষক আহত হয়েছেন।’



সাতদিনের সেরা