kalerkantho


পোশাকের দাম বাড়াতে ক্রেতাদের আহ্বান

মার্কিন রাষ্ট্রদূত-বাণিজ্যমন্ত্রী বৈঠক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১১:৩৪



পোশাকের দাম বাড়াতে ক্রেতাদের আহ্বান

তৈরি পোশাক খাতের উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়ায় পোশাকের মূল্য বাড়াতে বিদেশি ক্রেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের বড় বাজার। গত অর্থবছরে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে প্রায় ৬০০ কোটি ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছে। একই সময়ে বাংলাদেশ আমদানি করেছে প্রায় ১৭০ কোটি ডলার।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে তিনি এ কথা বলেন। বৈঠকে দ্বিপক্ষীয় নানা বিষয়ের পাশাপাশি বাংলাদেশের পোশাক কারখানার বর্তমান পরিস্থিতি জানতে চান মার্কিন রাষ্ট্রদূত। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলারকে ‘খোলা মনে’ দুই দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, শ্রমিকদের সুবিধা দিতে এবং বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বেতন বাড়ানো হয়েছে। পাশাপাশি অন্যান্য সুবিধাও বাড়ানো হয়েছে, বেড়েছে উৎপাদন খরচ, তাই ব্যবসায়ীদের মূল্য বৃদ্ধি করতে আহ্বান জানান বাণিজ্যমন্ত্রী। বাংলাদেশে মার্কিন বিনিয়োগ আরো বাড়ানোর আহ্বান জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখন সুবর্ণ সময়। সরকারের নেওয়া শতাধিক বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করা হচ্ছে। এসব অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র তাদের বিনিয়োগ নিয়ে আসতে পারে। সরকার বিনিয়োগকারীদের দেশে বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালে সুবর্ণ জয়ন্তীতে দেশের রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ছয় হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে তৈরি পোশাক খাত থেকে পাঁচ হাজার কোটি ডলার আয় করতে চায়। এ জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ। অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য ক্ষেত্রে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে চায়। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে তৈরি পোশাক রপ্তানি বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে। এ ছাড়া যেকোনো পরিমাণ তৈরি পোশাক রপ্তানির সামর্থ্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ। মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশের পক্ষে আমি একজন ভালো সেলসম্যান হতে চাই। বাংলাদেশের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বেশ ভালো।’



মন্তব্য