kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

‘হাওয়া’র নতুন গান নতুন রেকর্ড

রংবেরং প্রতিবেদক   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘হাওয়া’র নতুন গান নতুন রেকর্ড

‘হাওয়া’ ছবির ‘আটটা বাজে দেরি করিস না’ গানের একটি দৃশ্যে নাজিফা তুষি

২৯ জুলাই মুক্তির পর থেকেই প্রেক্ষাগৃহে যেন ঝোড়ো হাওয়া বইয়ে দিয়েছে মেজবাউর রহমান সুমনের ‘হাওয়া’। তারও তিন সপ্তাহ আগে ৭ জুলাই প্রকাশ পাওয়া ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানটি এখন মানুষের মুখে মুখে ফিরছে। বলা যায়, হাশিম মাহমুদের কথা ও সুরের গানটির মাদকতা দর্শককে হলমুখী করেছে। একের পর এক শো হাউসফুল যাচ্ছে সারা দেশের প্রেক্ষাগৃহে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার রাতে প্রকাশ করা হলো ‘হাওয়া’র দ্বিতীয় গান ‘আটটা বাজে দেরি করিস না’। বাসুদেব দাস বাউলের গাওয়া গানটির সংগীতায়োজন করেছেন ইমন চৌধুরী। ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানটিরও সংগীতায়োজন করেছিলেন তিনি। দ্বিতীয় গানটিও দর্শক-শ্রোতা দারুণ পছন্দ করেছে।

ছবির পরিচালক মেজবাউর রহমান সুমন বলেন, ‘গানটি অনেক আগের। বাসুদেব দাস বাউল তাঁর যৌবন বয়স থেকে গানটি গেয়ে আসছেন। ছবির স্ক্রিপ্ট লেখার সময় আমাদের অনেক শোনা হতো গানটি। বলা যায়, এ গান শুনতে শুনতেই হাওয়ার স্ক্রিপ্ট লেখা। ’

গানটি প্রকাশের পর থেকেই ভালো সাড়া পড়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে অনেকেই শেয়ার করছে গানটি। কারো কারো কাছে ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানের চেয়েও বেশি ভালো লেগেছে পরের গানটি। তবে গানটি প্রকাশে দেরি করা হলো কেন—অন্তর্জালে এই প্রশ্ন রেখেছে অনেকেই।

এদিকে দেশের সবচেয়ে বড় প্রেক্ষাগৃহ যশোরের মণিহারে রেকর্ড পরিমাণ ‘হাওয়া’র টিকিট বিক্রি হয়েছে বলে জানান হলটির বুুকিং এজেন্ট আলী আকবর সোহাগ। তিনি বলেন, “গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি টিকিট বিক্রি হয়েছে এই ছবির। চারটি শোয়ের সব কটিই ছিল হাউসফুল। প্রথম দিন তিন লাখ দুই হাজার টাকার টিকিট বিক্রি হয়েছে। দ্বিতীয় দিন হাউসফুল না গেলেও টিকিট বিক্রি হয়েছে পৌনে দুই লাখ টাকার। সর্বশেষ শাকিব খান অভিনীত ‘শিকারী’ [২০১৬] ছবিটির রেকর্ডসংখ্যক টিকিট বিক্রি হয়েছিল। ‘হাওয়া’র দর্শকের বেশির ভাগ ছাত্র-ছাত্রী ও যুবক। সবাই ছবিটি দেখে প্রশংসাও করছে। বলা চলে, সিনেমায় সুবাতাস বইতে শুরু করেছে। ”

দেড় হাজার আসনের মণিহার সহজে হাউসফুল যায় না। ‘হাওয়া’র আগে ‘পরাণ’ এই হলে খুব ভালো চলেছিল, তবু হাউসফুল হয়নি কোনো শো।



সাতদিনের সেরা