kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

দুই দিন সময় দিয়েছি

১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দুই দিন সময় দিয়েছি

অস্ট্রেলিয়া থাকেন শাবনূর। সেখান থেকেই মুঠোফোনে বিস্তর অভিযোগ জানালেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। কথা বলেছেন ছবি প্রযোজনা, করোনা পরিস্থিতি ও ব্যক্তিজীবন নিয়ে। তাঁর সঙ্গে কথা বলেছেন  সুদীপ কুমার দীপ

 

কেমন আছেন?

এখানে করোনার প্রভাব আবার বেড়েছে। বাইরে বের হওয়া একদম নিষেধ। বেশ ঝুঁকিতে আছি। বাংলাদেশ নিয়েও দুশ্চিন্তা হয়। কঠোর লকডাউন দিলেও কেউ মানছে বলে তো মনে হচ্ছে না। সংবাদমাধ্যমে দেখছি বেশির ভাগ মানুষ অসতর্ক অবস্থায় চলাফেরা করছে।

 

প্রায় তিন বছর হতে চলল দেশে আসেননি।

করোনার কারণে বেশ কয়েকবার পরিকল্পনা করেও দেশে আসতে পারিনি। মনটা ভীষণ ছটফট করছে দেশের জন্য। অনেক দিন ক্যামেরার সামনেও দাঁড়াইনি। এবার দেশে ফিরে অনেক কিছু করার পরিকল্পনা করেছিলাম। সেটা কবে বাস্তবায়ন করতে পারব কে জানে!

 

পরিচালক হিসেবে সদস্যপদ নিয়েছিলেন। ছবি নির্মাণের ঘোষণাও দিয়েছিলেন।

সিদ্ধান্ত বদলেছি। পরিচালক নয়, আগে প্রযোজক হিসেবে চলচ্চিত্রে অবদান রাখতে চাই। এই চলচ্চিত্র আমাকে অনেক দিয়েছে। এবার সময় এসেছে চলচ্চিত্রকে কিছু দেওয়ার। এখন ছবি নির্মাণ হচ্ছে না। বেশির ভাগ কলাকুশলী বেকার। পেশাদার প্রযোজকরাও ব্যবসা গুটিয়ে চলে গেছেন। এই সময়ে আমরা যাঁরা অভিনয়ের সঙ্গে আছি, তাঁদের ছবি নির্মাণ করা ছাড়া উপায় নেই।

 

আপনার প্রথম ছবির নির্মাতা কে হবেন?

এটা নিয়ে বেশ দ্বিধায় আছি। অনেক নির্মাতাই আমার প্রিয়। কাকে রেখে কাকে নেব, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়াটা জটিল। আশা করছি, একের পর এক ছবি নির্মাণ করব। আগে থেকেই জানিয়ে রাখছি, প্রিয় নির্মাতাদের কেউ নিরাশ হবেন না।

 

নিজে অভিনয় করবেন?

আপাতত একটি গল্প চূড়ান্ত করেছি। ছবির প্রধান পাত্র-পাত্রী নতুন নেব। যদি গল্পে আমার অভিনয়ের জায়গা থাকে তাহলে করব, নইলে না। এখন যে গল্পটি হাতে আছে সেখানে আমার অভিনয় করার মতো জায়গা নেই।

 

ফেসবুকে অভিযোগ তুলেছেন, আপনার নাম ভাঙিয়ে কারা যেন মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে...

এটা বেশ আগে থেকেই চলছে। তবে সম্প্রতি হাতেনাতে কয়েকটি প্রমাণ পেয়েছি। আমার কাছের অনেকে এই কাজে জড়িত। তাঁদের দুই দিন সময় দিয়েছি। যদি নিজেদের শুধরে নেন, প্রতারণা করে হাতিয়ে নেওয়া টাকা ফেরত দেন তাহলে নাম প্রকাশ করব না, নইলে দুই দিন পরে সবাইকে বিষয়টি জানাব। মামলাও করতে পারি। সামান্য কিছু দিনের পরিচয়ে কেউ কাছের মানুষ সেজে আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করে দেবে, তা হয় না।

 

অনেক দিন ধরে ব্যক্তিজীবনে একা আছেন। নতুন করে কিছু ভাবছেন?

এই মুহূর্তে ভাবছি না। পরিবার থেকে অবশ্য চাপ দিচ্ছে বিয়ের, আমার ইচ্ছা নেই। আইজানকে (পুত্র) নিয়েই সব চিন্তা-ভাবনা। তা ছাড়া এই মুহূর্তে মানুষকে বিশ্বাস করাটাও কঠিন! চাই না আর কোনো ভুল হোক।



সাতদিনের সেরা