kalerkantho

বুধবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৭। ৫ আগস্ট  ২০২০। ১৪ জিলহজ ১৪৪১

চলে গেলেন সরোজ খান

রংবেরং ডেস্ক   

৪ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চলে গেলেন সরোজ খান

গুরু সরোজ খানের সঙ্গে মাধুরী দীক্ষিত

বলিউডের নামি কোরিওগ্রাফার সরোজ খান মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার ভারতীয় সময় রাত ২টায় মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। ১৭ জুন শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল এসেছিল, সেরেও উঠছিলেন দ্রুত। কিন্তু আকস্মিকভাবে হৃদ্যন্ত্র বিকল হওয়ায় বাঁচানো যায়নি সরোজকে। প্রায় চার দশক ধরে কোরিওগ্রাফার হিসেবে কাজ করা সরোজ শুরু করেছিলেন ১৯৭৪ সালে, ‘গীতা মেরা নাম’ দিয়ে। তিনবার জাতীয় পুরস্কারজয়ী এই শিল্পী গেল বছর ‘কলঙ্ক’ ছবিতে মাধুরী দীক্ষিতের গানে শেষবারের মতো কোরিওগ্রাফি করেন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে দুই হাজারেরও বেশি গানের কোরিওগ্রাফি করেন। বলিউড অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কাছে তিনি ছিলেন ‘মাস্টারজি’। তাঁর কোরিওগ্রাফিতে জনপ্রিয় হওয়া গানের মধ্যে আছে ‘হাওয়া হাওয়া’, ‘এক দো তিন’, ‘ধক ধক করনে লাগা’, ‘ডোলা রে ডোলা’ ইত্যাদি। ২০০৫ থেকে ২০১০ পর্যন্ত নাচের বিভিন্ন রিয়ালিটি শোর বিচারকও হয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বলিউড তারকারা। অমিতাভ বচ্চন লিখেছেন, ‘প্রার্থনা রইল।’ মাধুরী দীক্ষিত লিখেছেন, ‘আমার গুরু সরোজের মৃত্যুতে আমি শোকস্তব্ধ। পৃথিবী একজন ভালো মানুষ হারাল।’ এ ছাড়া শোক জানিয়েছেন অক্ষয় কুমার, তাপসী পান্নু, তামান্না ভাটিয়া, বরুণ ধাওয়ান প্রমুখ। সরোজ স্বামী ছাড়াও রেখে গেছেন এক ছেলে, দুই মেয়ে।

মন্তব্য