kalerkantho

রবিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৮। ২৪ অক্টোবর ২০২১। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রকৌশলীকে হুমকি

নাটোরে এমপির সেই ভাগ্নে কারাগারে

নাটোর প্রতিনিধি   

২৭ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাটোরে গ্রেপ্তার সংসদ সদস্য (এমপি) শফিকুল ইসলাম শিমুলের ভাগ্নে নাফিউল ইসলাম অন্তরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। গতকাল বুধবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তানযীম আলম তাবাসসুমের ভার্চুয়াল আদালতে তাঁকে হাজির করা হয়। এ সময় বিচারক অন্তরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে নিজ কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার (এসপি) লিটন কুমার সাহা বলেন, ‘এমপি শিমুলের সহায়তায় অন্তরকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়।’

প্রসঙ্গত, জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হানকে মারধর, হত্যার হুমকি ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে করা মামলায় অন্তরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার জেলা শহরের বড়গাছা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্তর পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বিশিষ্ট ঠিকাদার ও জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ মীর আমিরুল ইসলাম জাহানের ছেলে। আগের দিন সোমবার রাতে তাঁর বিরুদ্ধে মামলাটি করেন ভুক্তভোগী প্রকৌশলী। নাটোর সদর থানায় এই মামলা করা হয়।

মুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

অন্তরকে মুক্তি দেওয়ার দাবিতে গতকাল দুপুরে জেলা শহরে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। ‘৭ নম্বর ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণ’-এর ব্যানারে এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মেহেদী হাসান শুভ। তিনি অভিযোগ করেন, ‘সোমবার বিকেলে পাউবোর প্রকৌশলী রায়হান (তাঁর) কার্যালয়ে ডেকে (অন্তরের বাবা) মীর আমিরুল ইসলাম জাহানের কাছে ঘুষ দাবি করেন। এতে অস্বীকৃতি জানালে প্রকৌশলী জাহানের গায়ে ফাইল ছুড়ে মারেন, গালাগাল করেন। অন্তর শুধু ঘটনার জোরালো প্রতিবাদ করেন। তাঁকে (প্রকৌশলী) মারধর বা লাঞ্ছিত করা বা সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি। তিনি উত্তেজিত অবস্থায় চেয়ার থেকে পড়ে আহত হন।’

মেহেদী হাসান আরো অভিযোগ করেন, রায়হান নাটোরে আসার পর থেকে পুরো কার্যালয়কে জিম্মি করে ফেলেছেন। পছন্দের ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দিতে কমিশন নেন।



সাতদিনের সেরা