kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বঙ্গবন্ধুর নেপথ্যের চালিকাশক্তি ছিলেন বঙ্গমাতা

নানা কর্মসূচিতে জন্মদিন উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



বঙ্গবন্ধুর নেপথ্যের চালিকাশক্তি ছিলেন বঙ্গমাতা

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বনানীতে তাঁর কবরস্থানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়। ছবি : কালের কণ্ঠ

বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকীতে পাঁচ গুণীর হাতে ‘বঙ্গমাতা পুরস্কার’ তুলে দিয়েছে বঙ্গমাতা পরিষদ।

বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের অনুমোদিত এই সংগঠন গতকাল বিকেলে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে এক আলোচনাসভার আয়োজন করে গুণীজনদের হাতে তুলে দেয় বঙ্গমাতা পুরস্কার। সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গমাতা পরিষদের প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও ন্যাশনাল ব্যাংকের পরিচালক পারভীন হক শিকদার। তাঁর সভাপতিত্বে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবকে নারী জাগরণের প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, ‘বঙ্গমাতা ছিলেন দেশের নারী জাগরণের অন্যতম সূত্রধর।

বিজ্ঞাপন

বঙ্গমাতার নেতৃত্বে এ দেশের নারীদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুর সময় থেকেই বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল। আজ বাংলাদেশে যে নারী জাগরণ ও নারীর ক্ষমতায়ন এগিয়ে চলছে পরোক্ষভাবে তার শুরু হয়েছিল বঙ্গমাতার হাত ধরেই। ’  

অনুষ্ঠানের সভাপতি পারভীন হক শিকদার বঙ্গমাতাকে চিহ্নিত করেছেন বঙ্গবন্ধুর নেপথ্যের চালিকাশক্তি হিসেবে, “বঙ্গমাতা না থাকলে শেখ মুজিবুর রহমান ‘বঙ্গবন্ধু’ হয়ে উঠতে পারতেন না। একজন আটপৌরে মহিলা হয়েও তিনি বঙ্গবন্ধুকে আগলে রেখেছেন এবং সাহস জুগিয়েছেন। ”

এ ছাড়া বিভিন্ন বক্তার বক্তব্যে বঙ্গমাতার জীবনসংগ্রামের বিভিন্ন দিক আলোচিত হয়েছে। বক্তব্য দেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম, সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আতাউর রহমান প্রধান, প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আমিনুর রহমান, বঙ্গমাতা পরিষদ সোনালী ব্যাংক শাখার সভাপতি ও মহাব্যবস্থাপক গিয়াস উদ্দিন মাহমুদ এবং সাবেক ছাত্রনেতা ও বঙ্গমাতা পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক এম আনিছুর রহমান।

এই আয়োজনে পৃষ্ঠপোষকতা করেছে বসুন্ধরা গ্রুপ, সোনালী ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক এবং মেন্ডি ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতাল।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গমাতা পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে বঙ্গমাতা পুরস্কার প্রদান করা হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

আলোচনা পর্ব শেষে মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রাখার জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আগা খান মিন্টু (সংসদ সদস্য), স্বাস্থ্য ও চিকিৎসায় অবদান রাখার জন্য পারভীন হক শিকদার, সমাজসেবার জন্য সারমিন সালাম, কবিতা ও সাহিত্যে এম শোয়েব চৌধুরী এবং যুব রাজনীতিতে বিশেষ অবদান রাখার জন্য সাজ্জাদ হায়দারকে বঙ্গমাতা পুরস্কার ২০২২-এ ভূষিত করা হয়।

গতকাল রাজধানীর মোহাম্মদপুরের সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনাসভায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গমাতা শুধু বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সারা জীবনের সহযোদ্ধা। বঙ্গমাতা একদিকে পরিবার সামলেছেন, অন্যদিকে তিনি দলের দুর্দিনে নেতাকর্মীদের আস্থার ঠিকানা ছিলেন। তিনি মরেননি, তিনি বেঁচে আছেন কোটি মানুষের প্রাণে।

সকালে বনানী কবরস্থানে বঙ্গমাতার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে বঙ্গমাতার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। পরে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ওবায়দুল কাদের। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং ফজিলাতুন নেছা মুজিব ও ১৫ আগস্টের হত্যাযজ্ঞে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল সকালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনাসভার আয়োজন করে যুবলীগ। সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী।

সভায় যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেন, ‘আগস্টের ট্র্যাজেডির সবচেয়ে বড় ট্র্যাজিক কুইন বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব। তাঁর সমগ্র জীবন অনুসরণ করলে দেখা যায়, তাঁর মতো ভুক্তভোগী মানুষ খুব কম আছে। মাত্র চার বছর বয়সে মা-বাবা হারিয়ে তিনি অনাথ হয়েছেন। ’ 

রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব মিলনায়তনে ‘বাঙালির গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও মুক্তি সংগ্রামের নেপথ্যের সংগঠক’ শীর্ষক আলোচনাসভায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি আলোচনাসভা ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে ফলমূল, শাক-সবজি ও মাষকলাইয়ের বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

সুরক্ষাসেবা বিভাগের উদ্যোগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে আলোচনাসভা হয় বিকেল আড়াইটার দিকে। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

বাংলা একাডেমি আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে গতকাল প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

বিদেশে বাংলাদেশ হাইকমিশন ও দূতাবাসগুলোতেও দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়।

 



সাতদিনের সেরা