kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১১ আগস্ট ২০২২ । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১২ মহররম ১৪৪৪

অবৈধভাবে জ্যামার-বুস্টার বিক্রি, দুজন গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশে গোপনে মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক ও যোগাযোগ নিয়ন্ত্রণকারী যন্ত্রের কারবার চলছে। দুই বছর ধরে অবৈধভাবে দুই শতাধিক মোবাইল নেটওয়ার্ক জ্যামার, জ্যামার অ্যান্টেনা ও নেটওয়ার্ক বুস্টারসহ বিভিন্ন যন্ত্রপাতি বিক্রি হয়েছে বলে তথ্য পেয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তারা। কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান এসব যন্ত্রপাতি কিনে ব্যাবহার করছে। এসব প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে অস্থিতিশীলতা ও নাশকতা ছড়ানোর পরিকল্পনা থাকতে পারে বলেও সন্দেহ করছেন তদন্তকারীরা।

বিজ্ঞাপন

রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে গত শনিবার বিপুল পরিমাণ অবৈধ জ্যামার, রিপিটার ও নেটওয়ার্ক বুস্টারসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করে এ তথ্য জানিয়েছে র‌্যাব। গতকাল রবিবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৩-এর অধিনায়ক (সিও) কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ এসব তথ্য জানান।

গ্রেপ্তার দুই ব্যক্তি হলেন আবু নোমান (২৮) ও সোহেল রানা (৩৭)। তাঁদের কাছ থেকে চারটি জ্যামার, ২৪টি জ্যামার অ্যান্টেনা, তিনটি বুস্টার ও একটি ল্যাপটপসহ নানা সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, র‌্যাব-৩-এর একটি দল বিটিআরসির প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে গত শনিবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে মোহাম্মদপুরে অভিযান চালায়। এ সময় জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার অবৈধভাবে বিক্রয়কারী ওই দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে এই র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, গ্রেপ্তার দুজন দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার বিক্রি করে আসছেন। দুজনেরই আলাদা করে ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজ রয়েছে। ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজের মাধ্যমে তাঁরা আইপি ক্যামেরা, ডিজিটাল ক্যামেরা ও ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশসহ জ্যামার, রিপিটার ও বুস্টারসহ এর যন্ত্রাংশ অবৈধভাবে বিক্রি করতেন।

কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ আরো বলেন, জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার টুজি , থ্রিজি  ও ফোরজি  মোবাইল নেটওয়ার্কের কার্যক্ষমতাকে প্রভাবিত করতে সক্ষম। তাঁদের ক্রেতা বিভিন্ন বহুতল ভবনের বাসিন্দা ও মসজিদ কর্তৃপক্ষ। অপরাধীরাও অপরাধ করার উদ্দেশ্যে উচ্চমূল্যে এসব অবৈধ পণ্য ক্রয় করে থাকে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘জিজ্ঞাসাবাদে দুটি বিষয়ে র‌্যাব-৩ নিশ্চিত হয়েছে। তবে আমরা নাশকতার পরিকল্পনা ছিল কি না সে ব্যাপারে প্রশ্নের সদুত্তর পাইনি।



সাতদিনের সেরা