kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

পরাজিত চেয়ারম্যানের ভাইকে হাতুড়িপেটা

বেনাপোল (যশোর) ও দেবীদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পরাজিত চেয়ারম্যানের ভাইকে হাতুড়িপেটা

আহত আব্দুল ওহাব

যশোরের শার্শা উপজেলার গোগা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদের ভাই আব্দুল ওহাবকে (৫৫) হাতুড়িপেটা করে আহত করা হয়েছে। সদ্যোনির্বাচিত চেয়ারম্যান তবিবুর রহমানের অনুসারীরা গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তাঁর বাড়িতে ঢুকে হামলা চালায়। এ সময় তারা আব্দুল ওহাবকে লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ আরো পাঁচ-ছয়জন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করে থানায় মামলা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আহত আব্দুল ওহাব বর্তমানে শার্শা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

আহত আব্দুল ওহাবের স্ত্রী সালেহা খাতুন বলেন, ‘এবারের ইউপি নির্বাচনে আমার স্বামীর বড় ভাই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন। তিনি নির্বাচনে পরাজিত হন। নতুন চেয়ারম্যান শপথ নেওয়ার পর আমাদের বাড়িতে চাঁদা চাইতে আসে উপজেলার হরিশচন্দ্রপুর গ্রামের জুম্মান আলী, রানা মিয়া, আইজুল মিয়া, ফারুক হোসেন, আব্দুল মজিদসহ আরো পাঁচ-ছয়জন। চাঁদা দিতে রাজি না হওয়ায় তারা আমার স্বামীকে হাতুড়ি, রড ও লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করে আহত করে। তাঁকে বাঁচাতে গেলে আমার মেয়ে শ্যামলী ও আমাকে মারধর করে তারা। পরে আমাদের বাড়ির আসবাব ভাঙচুর করে চলে যায়। ’

এ বিষয়ে জানতে গোগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তবিবর রহমানকে ফোন দিলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি। বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগ করেও তাঁর বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

এদিকে কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলার বড় শালঘর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত আটজন আহত হয়েছে। গত শুক্রবার সকালে ইউনিয়নের ছোট শালঘর দক্ষিণ পাড়ার জহুরুদ্দির বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে উভয় পক্ষ বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সদস্য পদপ্রার্থী ফরিদ উদ্দিনের সমর্থক জুয়েলের সঙ্গে আরেক সদস্য পদপ্রার্থী আলম হাজারীর সমর্থক ইদ্রিস ও মোকাদ্দেসের টাকা লেনদেনের বিষয় নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে অন্তত আটজন আহত হয়। আহতদের মধ্যে ফরিদ উদ্দিনের সমর্থক দুলাল মিয়া, সুলতান মিয়া ও অমিত হাসানকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে আলম হাজারীর সমর্থক মনির হোসেন, জিকির মিয়া ও রিপন হাজারীকে দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘আমার সমর্থকদের ওপর আধিপত্য বিস্তারের জন্য আলম হাজারীর সমর্থকরা অন্যায়ভাবে হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় আহত দুলাল মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেন বাদী হয়ে দেবীদ্বার থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। ’

ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী আলম হাজারী বলেন, ‘আগামী ৭ ফেব্রুয়ারির ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে একটি পক্ষ তুচ্ছ ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করার চেষ্টা করছে। ’

দেবীদ্বার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জহির উদ্দিন বলেন, ‘সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষকেই শান্ত করে পরিস্থিতি সামাল দিই। এ ঘটনায় দুই পক্ষ দুটি লিখিত অভিযোগ করেছে। অভিযোগ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’



সাতদিনের সেরা