kalerkantho

শনিবার । ২৫ জুন ২০২২ । ১১ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

লিবিয়ায় পুলিশের গুলিতে শেষ আমিনুলের স্বপ্ন

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি   

৫ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার খশির আবদুল্লাহপুর এলাকার আলা উদ্দিনের ছেলে আমিনুল ইসলামের (২২) স্বপ্ন ছিল লিবিয়া হয়ে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপের দেশ ইতালিতে যাওয়ার। দালালের হাত ধরে রওনাও দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাঁর সেই স্বপ্ন আর পূরণ হলো না। লিবিয়ার জেল থেকে পালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন আমিনুল।

বিজ্ঞাপন

রবিবার লিবিয়ায় আমিনুলের সঙ্গে থাকা এক ব্যক্তি এ খবর জানান।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বছরখানেক আগে ইউরোপ যাওয়ার জন্য দালালের মাধ্যমে লিবিয়ায় পাড়ি জমান আমিনুল। সেখান থেকে মাস তিনেক আগে ইতালির উদ্দেশে রওনা হওয়ার সময় আটক হন লিবিয়া পুলিশের হাতে। এরপর থেকে পরিবারের সঙ্গে তাঁর আর যোগাযোগ হয়নি। রবিবার বিকেলে লিবিয়ায় অবস্থানরত বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের এক যুবক ফোনে জানান, আমিনুল জেল থেকে পালাতে চেয়েছিলেন। এ সময় পুলিশের গুলিতে তিনি মারা গেছেন। মৃত্যুর পর আমিনুলকে সে দেশেই দাফন করা হয়েছে।

এদিকে, পরিবারের বড় ছেলের এমন করুণ মৃত্যুতে মাতম চলছে আমিনুলের পরিবারে। বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন আমিনুলের মা সুফিয়া বেগম। সন্তানহারা মাকে সান্ত্বনা দেওয়ার কোনো ভাষাও জানা নেই আত্মীয়-স্বজনদের।

আমিনুলেন বাবা সিএনজি অটোরিকশাচালক আলা উদ্দিন বলেন, ‘সহায়-সম্বল বিক্রি করে ছেলেকে লিবিয়ায় পাঠিয়েছিলাম। জেলে যাওয়ার আগে প্রায়ই ফোনে কথা হতো তার সঙ্গে। কিন্তু গত তিন মাস থেকে তার কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। যে দালালের মাধ্যমে তাকে পাঠিয়ে ছিলাম, তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে সে-ও আমার ছেলের কোনো খোঁজ দিতে পারেনি। কিন্তু রবিবার লিবিয়া থেকে একজন ফোন করে জানায় আমিনুল পুলিশের গুলিতে মারা গেছে। ’

আলা উদ্দিন জানান, এখন পর্যন্ত অবশ্য অফিশিয়ালি ছেলের মৃত্যুর খবর পাননি তাঁরা।



সাতদিনের সেরা