kalerkantho

শনিবার । ২৫ জুন ২০২২ । ১১ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

মিয়ানমারকে প্রকৃত গণতন্ত্রে ফেরানোর আহবান যুক্তরাষ্ট্রের

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

৪ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মিয়ানমারকে অংশগ্রহণমূলক গণতন্ত্রের পথে ফেরাতে ক্ষমতা দখলকারী জান্তার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন এক বিবৃতিতে ওই আহ্বান জানান। তিনি মিয়ানমারে গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রামরত জনগণের প্রতিও সমর্থন জানিয়েছেন। আজ মঙ্গলবার মিয়ানমারের স্বাধীনতা দিবস।

বিজ্ঞাপন

এর প্রাক্কালে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওই বিবৃতি দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমারে সবার জন্য অংশগ্রহণমূলক গণতন্ত্র, মানবাধিকারের প্রতি সম্মান ও আইনের শাসন পুনঃপ্রতিষ্ঠায় যাঁরা সংগ্রাম করছেন, তাঁদের আমরা সম্মান জানাই। মিয়ানমারে শাসকগোষ্ঠীর ভয়ংকর নিপীড়ন সহ্য করেও যারা অপেক্ষাকৃত ভালো ভবিষ্যতের আশা ছাড়েনি, তাদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র অঙ্গীকারবদ্ধ। ’

অ্যান্টনি ব্লিংকেন বলেন, ‘অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধ, অন্যায়ভাবে আটক করা সবাইকে মুক্তি প্রদান এবং অংশগ্রহণমূলক ও প্রকৃত গণতন্ত্রের পথে মিয়ানমারকে ফেরাতে আমরা সামরিক শাসকের প্রতি আবারও আহ্বান জানাই। ’

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, সাধারণত স্বাধীনতা বা জাতীয় দিবস উপলক্ষে এ ধরনের বার্তাগুলোতে জনগণের পাশাপাশি ক্ষমতাসীন সরকার বা কর্তৃপক্ষকেও সমর্থন জানানো হয়। মিয়ামারের ক্ষেত্রে জান্তা নয়, জনগণের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

গত বছর ফেব্রুয়ারিতে নির্বাচিত সরকারকে উত্খাত করে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র এর সমালোচনা করে আসছে। মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া বানচাল এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের সঙ্গে সম্পৃক্ত শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় আগামী দিনে মিয়ানমারের ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞাও আসতে পারে বলে কূটনৈতিক সূত্রগুলো ইঙ্গিত দিয়েছে।



সাতদিনের সেরা