kalerkantho

শুক্রবার । ৭ মাঘ ১৪২৮। ২১ জানুয়ারি ২০২২। ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথ

পরীক্ষামূলক ফেরি চলবে কাল

সফল হলে এদিন থেকেই যানবাহনসহ ফেরি চালু

মুন্সীগঞ্জ ও শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি   

৩ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পরীক্ষামূলক ফেরি চলবে কাল

টানা ৪৬ দিন বন্ধ থাকার পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে আগামীকাল সোমবার পরীক্ষামূলক ফেরি চালানো হবে। পরীক্ষায় সফল হলে সোমবার থেকেই যানবাহন নিয়ে ফেরি চলাচল শুরু হবে। এ জন্য ফেরিও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পদ্মা নদীতে স্রোতের গতিবেগ কমে আসায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এতে এই নৌপথে চলাচলকারী যাত্রীদের দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান হতে চলেছে। ব্যবসায়ীরাও সহজ পথে দ্রুত সময়ে পণ্য পরিবহনে আগের অবস্থানে ফিরে যেতে পারবেন। ফেরি চালু হওয়ার খবরে যাত্রী, পরিবহন মালিক ও ঘাটসংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডাব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান সৈয়দ তাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, গত বৃহস্পতিবার বিশেষজ্ঞ দল দেশের গুরুত্বপূর্ণ মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ও মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজার নৌপথটি পরিদর্শন শেষে পদ্মা নদীতে স্রোতের গতি ফেরি চলাচল উপযোগী বলে মনে করেছেন। তাই সোমবার পরীক্ষামূলকভাবে এই নৌপথে ফেরি চালুর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই বিশেষজ্ঞ দল বিআইডাব্লিউটিএর ক্রেনবোট ধরলা-১৭ করে পদ্মা নদীর বিভিন্ন পয়েন্ট ঘুরে দেখে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বিআইডাব্লিউটিএ ও বিআইডাব্লিউটিসির প্রতিনিধিদলের সমন্বয়ে পদ্মা সেতু এলাকা পরিদর্শন করা হয়। শনিবারের (গতকাল) মধ্যে পদ্মা সেতুর ২১ নম্বর খুঁটি বরাবর ১.৫ কিলোমিটার আপ-এ লাল বয়াটি পুনঃস্থাপন করার সিদ্ধান্ত হয়। এ ছাড়া সিদ্ধান্ত মতে শিমুলিয়া থেকে ফেরিগুলো বাংলাবাজার যাবে ১৩-১৪ বা ১৪-১৫ নম্বর খুঁটির মধ্য দিয়ে। তবে লক্ষ্য থাকবে ১৪-১৫ নম্বর খুঁটির মাঝখান দিয়ে যাওয়া। আর বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়ায় আসবে ১৯-২০ বা ২০-২১ নম্বর খুঁটির মধ্য দিয়ে। তবে লক্ষ্য থাকবে ১৯-২০ নম্বর খুঁটির মাঝখান দিয়ে চলাচলের। সোমবার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পরীক্ষামূলক ফেরি চলবে বলে বিআইডাব্লিউটিসি নিশ্চিত করেছে।

বিআইডাব্লিউটিসির এজিএম মো. শফিকুল ইসলাম জানান, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথের ফেরিগুলো বর্তমানে আরিচা, ভোলা ও চাঁদপুরে চলাচল করছে। পাঁচটি পুরনো ডাম্ব ফেরি এবং ক্যামেলিয়া ও কুমিল্লা নামের দুটি কে টাইপ ফেরি এখন ঘাটে নোঙরে রয়েছে। তবে নৌপথ চালু হলে এই পথের সব ফেরিই আবার ফিরিয়ে আনা হবে।

বিআইডাব্লিউটিসির পরিচালক (বাণিজ্য) মো. আশিকুজ্জামান বলেন, সোমবার যানবাহন ছাড়া পরীক্ষামূলক ফেরি চালানো হবে। পরীক্ষায় সফল হলে এদিন থেকেই যানবাহন নিয়ে ফেরি চলাচল করবে।

বাংলাবাজার ঘাটের বিআইডাব্লিউটিসির ব্যবস্থাপক মো. সালাহউদ্দিন বলেন, পরীক্ষামূলকভাবে চালানোর জন্য ফেরি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পদ্মায় প্রবল স্রোতের কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে চলাচলকারী ফেরিগুলো নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একের পর এক পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দিচ্ছিল। ফলে গেল ১৮ আগস্ট থেকে এই পথে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার প্রবেশপথ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে দীর্ঘদিন ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় চরম বিড়ম্বনায় পড়েন যাত্রীরা। উত্তাল পদ্মায় ছোট লঞ্চকে অতিরিক্ত যাত্রীসহ ঝুঁকি নিয়ে নদী পাড়ি দিতে হয়। তা-ও লঞ্চ চলে শুধু দিনে। ফলে জরুরি প্রয়োজনে পদ্মা পাড়ি দিতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় যাত্রীদের। এখন ফেরি চালুর খবরে খুশি এই পথে যাতায়াতকারীরা।



সাতদিনের সেরা