kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

সংক্ষিপ্ত

মসজিদে হত্যার ঘটনায় মামলা গ্রেপ্তার ১

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুমিল্লার মুরাদনগরে খুতবার আজান দেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় মামলা হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে নিহতের স্ত্রী আফরোজা বেগম বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখ ছাড়াও অচেনা চার থেকে পাঁচজনকে আসামি করে বাঙ্গরা থানায় মামলা করেছেন। এরই মধ্যে প্রধান আসামি শাহীন ভুইয়াকে (৪৫) গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এদিকে গতকাল শনিবার নিহতের বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের ন্যায়বিচারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনের সংসদ সদস্য ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন। পরে কুড়াখাল সৈয়দ দায়েম উল্লাহ শিশু সদন হাফেজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানা মাঠে সমবেত লোকজনের উদ্দেশে তিনি বলেন, বর্বরতা চালিয়ে পার পাওয়ার সুযোগ নেই। আর যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সেদিকে সবাই খেয়াল রাখবেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কুড়াখাল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদটি প্রতিষ্ঠার পর থেকেই জুমার জামাতে খুতবার আজান ইমামের সামনে নাকি মসজিদের দরজায় দাঁড়িয়ে দেওয়া হবে তা নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এক পক্ষ মসজিদের ভেতরে ইমামের সামনে জুমার খুতবার আজানের পক্ষে। অন্য পক্ষের দাবি, মসজিদের দরজায় দাঁড়িয়ে উচ্চৈঃস্বরে আজান দিতে হবে। গত শুক্রবার খুতবার আজান দেওয়াকে কেন্দ্র করে মসজিদের সহসভাপতি হাবিব খান গ্রুপের ওপর সভাপতি আব্দুল মালেক গ্রুপ মসজিদের ভেতরে হামলা চালায়। হামলায় সুন্নত নামাজরত অবস্থায় একাধিক ছুরির আঘাতে মারা যান মুসল্লি আবু হানিফ খান (৪৩)। সংঘর্ষকালে রামদা, লোহার রড ও লাঠিসোঁটার আঘাতে আহত হন আরো ১০ থেকে ১২ জন। বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, জুমার নামাজে খুতবার আজান মসজিদের ভেতরে না বাইরে দেওয়া হবে, তা নিয়ে এই হামলা-সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে শাহীন ভুইয়া নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা