kalerkantho

রবিবার । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৫ ডিসেম্বর ২০২১। ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিন

টিকার দ্বিতীয় ডোজের জন্য ধৈর্য ধরার আহবান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে উদ্বিগ্ন না হয়ে ধৈর্য ধরার আহবান জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে। একই সঙ্গে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ সহজলভ্য করতে কাজ করা হচ্ছে বলেও জানানো হয়। গতকাল বুধবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও পরিচালক (সিডিসি) অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম এসব তথ্য তুলে ধরেন।

বুলেটিনে বলা হয়, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকরমাইকোসিস নিয়ে দেশে এক ধরনের উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে। মিউকরমাইকোসিস আদিকাল থেকেই পরিবেশের সঙ্গে আছে। বিশেষ পরিস্থিতিতে ক্ষেত্রবিশেষে কখনো কখনো এর প্রাদুর্ভাব দেখা যেতে পারে। কভিড পরিস্থিতিতে ক্ষেত্রবিশেষে যেখানে স্টেরয়েড ব্যবহার করতে হয়, যাদের ডায়াবেটিসসহ আরো জটিলতা আছে এবং যাদের অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস তাদের ক্ষেত্রে মিউকরমাইকোসিস বিপদের কারণ হতে পারে। সেদিকে নজর রেখেই এই চিকিৎসার ওষুধ সহজলভ্য করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে টিকা সংগ্রহের সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে। যাঁরা প্রথম ডোজ নিয়েছেন তাঁদের মধ্যে যাঁরা এখনই দ্বিতীয় ডোজ পাবেন না তাঁদের একটু ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করতে হবে। শিগগিরই টিকা পাওয়া যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এ ছাড়া ১২-১৬ সপ্তাহ পর্যন্ত এমনিতেই অপেক্ষা করা যায় বরং তাতে ফল ভালো হয়।



সাতদিনের সেরা