kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

রোগী সেজে গাড়ি ছিনতাই

৯৯৯-এ ফোন করার পর উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রোগী সেজে হাসপাতালে যাওয়ার কথা বলে ছিনতাইকারীচক্র ছিনিয়ে নিয়েছিল ব্যক্তিগত একটি গাড়ি। অবশেষে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করার পর সেটি উদ্ধার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার রাত পৌনে ১০টায় আনোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তি গাজীপুরের শ্রীপুরের মাওনা থেকে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। ওই কলার জানান, তাঁর ঢাকা মেট্রো গ ৩১-০১১৬ নম্বরের সাদা রঙের টয়োটা প্রিমিও ব্যক্তিগত গাড়িটি তাঁর ছেলে ভাড়ায় চালায়। শুক্রবার বিকেলে তিনজন যাত্রী নিয়ে মাওনা থেকে তাঁর ছেলে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা হয়। যাত্রীদের একজন গুরুতর অসুস্থ বলে জানায়। তারা ময়মনসিংহ মেডিক্যালে পৌঁছার পর জানায়, রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিক্যালে রেফার করা হয়েছে। তখন তাঁর ছেলে তাদের নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। পথিমধ্যে ময়মনসিংহের ভালুকার হাজিপাড়া বাইপাসের কাছে রোগী সেজে থাকা যাত্রী ও তার সহযোগীরা তাঁর ছেলেকে গাড়ি থামাতে বাধ্য করে। তারপর তাকে মারধর করে মুখে স্কচটেপ লাগিয়ে হাত-পা বেঁধে রাস্তার পাশে নির্জন স্থানে ফেলে গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়।

ফোন পেয়ে ৯৯৯ নম্বর থেকে তাত্ক্ষণিকভাবে ময়মনসিংহের ভালুকা থানা ও ময়মনসিংহ পুলিশ কন্ট্রোল রুমে ঘটনা জানিয়ে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। গত শনিবার সকালে কলার তাঁর গাড়িতে স্থাপিত জিপিএস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান থেকে গাড়ির লোকেশন জানতে পারেন। ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে তিনি জানান, গাড়িটি এরই মধ্যে ঢাকায় প্রবেশ করেছে এবং মিরপুরের রূপনগর এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে। রূপনগর থানার একটি দল কলারের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে তাঁর দেওয়া লোকেশন অনুযায়ী গাড়িটি খুঁজতে থাকে। কিন্তু চতুর ছিনতাইকারীরা ক্রমাগত অবস্থান পরিবর্তন করছিল।

রূপনগর থানার এসআই মাসুদ ৯৯৯-এ ফোন করে জানান, মিরপুরের শাহআলীবাগ, বৌবাজার, বটতলায় একটি সরু গলি থেকে রাস্তার পাশে পার্ক করা পরিত্যক্ত অবস্থায় গাড়িটি উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের তৎপরতা টের পেয়ে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়।