kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ বৈশাখ ১৪২৮। ১০ মে ২০২১। ২৭ রমজান ১৪৪২

হেফাজতের হামলায় আহত আ. লীগ নেতার মৃত্যু

দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের অঙ্গীকার তথ্যমন্ত্রীর

রাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৮ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক নারীসহ অবরুদ্ধের প্রতিবাদে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার কোদালায় বের করা মিছিল থেকে হামলায় গুরুতর আহত আওয়ামী লীগ নেতা মো. মুহিবুল্লাহ (৫৪) মারা গেছেন। চট্টগ্রাম নগরীর পার্কভিউ হাসপাতালে চার দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে গত মঙ্গলবার গভীর রাতে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে আওয়ামী লীগ নেতা মুহিবুল্লাহর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন রাঙ্গুনিয়ার সংসদ সদস্য, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ। গতকাল এক শোক বার্তায় তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নেতা মুহিবুল্লাহর মৃত্যুতে আমি গভীর শোকাহত। সর্বশক্তিমান আল্লাহ তাঁকে জান্নাত দান করুন। তাঁর খুনিরা অবশ্যই দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পাবে। প্রশাসন অবশ্যই এটি নিশ্চিত করবে।’

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, গত শনিবার রাত ৮টার দিকে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর একটি রিসোর্টে নারীসহ অবরুদ্ধের খবর ছড়িয়ে পড়লে রাঙ্গুনিয়ার কোদালায় একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন বিএনপি-জামায়াতের স্থানীয় নেতাকর্মীরা। মিছিলে হেফাজতে ইসলামের একাংশের কর্মীরাও যোগ দেন। মিছিলের অগ্রভাগে নেতৃত্ব দেন বিএনপি নেতা ইউনুছ মনি। মিছিলটি ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে শুরু করে পূর্ব কোদালা ৬ নম্বর ওয়ার্ড পর্যন্ত যায়। পরে ৫ নম্বর ওয়ার্ড দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদের সামনে বিক্ষোভ মিছিল থেকে লাঠিসোঁটা নিয়ে মারধর করা হয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ মুহিব্বুল্লাহ, ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আবদুল জব্বার ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক দিলদার আজম লিটনকে। এ সময় পুলিশ গেলে মিছিলকারীরা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

বেধড়ক পিটুনিতে আওয়ামী লীগ নেতা মুহিবুল্লাহ ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারান। তাঁর মাথায় গুরুতর আঘাতসহ শরীরজুড়ে আঘাতের চিহ্ন ছিল। স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে চট্টগ্রামের পার্কভিউ হাসপাতালে নেয়। সেখানে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন মুহিবুল্লাহকে সর্বশেষ মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। গভীর রাতে তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় রাঙ্গুনিয়া থানায় দুটি মামলা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা