kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

শিমুলিয়া ঘাটে যানের লাইন ছয় কিমি

১৬টি ফেরির ১৪টিই কাজে লাগছে না

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অন্যতম প্রবেশপথ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ রুটে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনও পার হতে পারেনি জরুরি পরিষেবার যানবাহনসহ পণ্যবাহী ট্রাক। চালকদের অভিযোগ, এসব গাড়িকে অগ্রাধিকার না দিয়ে মোটরসাইকেল ও ব্যক্তিগত যানবাহন পারাপারে ব্যস্ত রয়েছে ফেরি কর্তৃপক্ষ।

বাংলাবাজার নৌ রুটে গত লকডাউনেও পারাপার হয়েছে পণ্যবাহী ট্রাক ও জরুরি পরিষেবার যানবাহন। কিন্তু এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে বাড়ছে পণ্যবাহী ট্রাক, জরুরি পরিষেবার যানবাহনসহ কাভার্ড ভ্যানের সংখ্যা।

গতকাল মঙ্গলবার সরেজমিনে দেখা যায়, যানবাহনের সারি ঘাট এলাকা ছাড়িয়ে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে পার্শ্ববর্তী শ্রীনগর উপজেলার কেওটচিরা পর্যন্ত গিয়ে ঠেকেছে। এই নৌ রুটে চারটি রোরো, ছয়টি ড্রাম, তিনটি কে-টাইপ, তিনটি ছোট ফেরিসহ মোট ১৬টি ফেরি রয়েছে। তবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনার অজুহাতে ঘাট এলাকায় ১৪টি ফেরিই এক প্রকার অলস সময় পার করছে। ফরিদপুর ও কুমিল্লা নামের দুটি ছোট ফেরি দিয়ে ঘাটটি চালু রেখেছে বিআইডাব্লিউটিসি। এসব ফেরি দিয়ে মোটরসাইকেল, ব্যক্তিগত যানবাহন, ভিআইপি গাড়ি ও অ্যাম্বুল্যান্স পারাপার করা হচ্ছে।

বিআইডাব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ঘাট থেকে লঞ্চ, সি-বোট, ট্রলার সবই চলছে। অনুমতি পেলে ফেরির সংখ্যা বাড়ানো হবে।