kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

দৌলতদিয়া ঘাটে আটকা শত শত ট্রাক, ভোগান্তি

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি   

২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘তিন দিন যাবৎ গাড়ি নিয়ে রাস্তায় লম্বা সিরিয়ালে আটকা পড়ে আছি। আশপাশে কোনো দোকানপাট নেই। ঠিকমতো নাওয়া-খাওয়াও করতে পারছি না। কবে ফেরি পার হতে পারব, তা-ও কেউ বলতে পারছে না। এদিকে রোড খরচের টাকাও ফুরিয়ে এসেছে। গাড়ি নিয়ে এখন খুব বিপদের মধ্যে আছি।’ এভাবেই অসহায়ত্বের কথা বলছিলেন আমিরুল ইসলাম শেখ। ঝিনাইদহ থেকে ছেড়ে আসা গাজীপুরগামী মালবোঝাই কাভার্ড ভ্যানের চালক তিনি। পথে ফেরি পার হতে এসে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট থেকে মহাসড়কের ১৬ কিলোমিটার দূরে আটকা পড়েছেন তিনি। তাঁর মতো শত শত চালক ট্রাক নিয়ে রাজবাড়ী সদর থানার কল্যাণপুর এলাকায় অপচনশীল বিভিন্ন পণ্য নিয়ে আটকা পড়েছেন।

গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাটসহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, দৌলতদিয়া ঘাট ট্রাক টার্মিনালের বিশাল পার্কিং ইয়ার্ড অনেকটা ফাঁকা পড়ে আছে। অন্যদিকে ফেরিঘাটের জিরোপয়েন্ট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ ক্যানেল ঘাট পর্যন্ত তিন কিলোমিটার চার লেন সড়কের এক পাশে পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি। এদিকে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে মহাসড়কের ১৫ কিলোমিটার দূরে রাজবাড়ী সদর থানার গোয়ালন্দ মোড়। সেখান থেকে গোয়ালন্দ মোড়-কুষ্টিয়া সড়কের রাজবাড়ী জুটমিলস পর্যন্ত চার কিলোমিটার রাস্তায় শত শত ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যানের দীর্ঘ সারি দেখা গেল। 

কয়েকজন ট্রাকচালক জানান, দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী বিভিন্ন পণ্যবোঝাই ওই ট্রাকগুলো আটকে রেখেছে টাফিক পুলিশ। যশোর থেকে আসা ট্রাকচালক আশরাফ আলী মিয়া বলেন, ‘দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথের দূরত্ব মাত্র তিন কিলোমিটার। অথচ সামান্য ওই নৌপথ ফেরি পার হতে এসে দীর্ঘ সিরিয়ালে গাড়ি নিয়ে আমাদের তিন-চার দিন অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। ট্রাকে বয়ে আনা মালপত্র সময়মতো গন্তব্যে পৌঁছে দিতে না পারলে সংশ্লিষ্ট মহাজনের অনেক টাকার ক্ষতি হয়ে যাবে।’

 

মন্তব্য