kalerkantho

বুধবার । ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭। ৩ মার্চ ২০২১। ১৮ রজব ১৪৪২

কোটচাঁদপুরে মেয়র প্রার্থীদের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি   

২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে আসন্ন পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেয়র পদপ্রার্থীদের মধ্যে অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ দিন দিন বাড়ছে। প্রার্থীরা একে অন্যের বিরুদ্ধে হামলা, জখম, প্রচারে বাধা, এমনকি নির্বাচনী কার্যালয় পোড়ানোর অভিযোগও করছেন। আগামী ৩০ জানুয়ারির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনী মাঠ ক্রমেই উত্তপ্ত হচ্ছে। আসন্ন নির্বাচনে মেয়র পদে মোট চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন নৌকা প্রতীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলী, ধানের শীষ প্রতীকে পৌর বিএনপির আহ্বায়ক ও সাবেক মেয়র সালাউদ্দীন বুলবুল সিডল, নারিকেলগাছ প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম এবং মোবাইল প্রতীকে আওয়ামী লীগের ’বিদ্রোহী’ বলে পরিচিত পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শহিদুজ্জামান সেলিম। বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার কারণে সেলিমকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শাহজাহান আলী অভিযোগ করে বলেন, ‘শহরের সলেমানপুর ও রুদ্রপুরে শুক্রবার রাতে শহিদুজ্জামান সেলিমের ভাই শাহিন ও তাঁদের সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের দুটি নির্বাচনী অফিস পুড়িয়ে দিয়েছে এবং কর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এ নিয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।’ এর পাল্টা শহিদুজ্জামান সেলিম বলেন, ‘আমার জনপ্রিয়তায় শাহজাহান আলী নিশ্চিত পরাজিত হবেন। সেই কারণে আমার ও আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে মিথ্যা নাটক সাজিয়েছেন।’

এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম জাহিদ অভিযোগ করেছেন, ‘গতকাল শনিবার প্রচারের মাইক সলেমানপুর গেলে নৌকা প্রতীকের সন্ত্রাসীরা মাইক ভাঙচুর করে প্রচারের মেমোরি কার্ড নিয়ে নেয়।’ বিএনপির প্রার্থী সালাউদ্দীন অভিযোগ করেন, ‘শাহজাহান আলী ও শহিদুজ্জামান সেলিমের লোকজন আমার কর্মীদের হামলা ও ধাওয়া করছে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জানিয়েও কাজ হচ্ছে না।’

কোটচাঁদপুর থানার ওসি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘অভিযোগ নিয়ে কেউ আসেনি। এলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা