kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সাভারে পর পর দুই দিন ধর্ষণ, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

বিভিন্ন স্থানে আরো পাঁচজনকে নিপীড়নের অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঢাকার সাভারের উলাইল এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থেকে পোশাক কারখানায় কাজ করেন এক দম্পতি। তাঁরা কর্মস্থলে থাকার সময় তাঁদের মেয়ে (৬) একাই বাসায় থাকে। এই সুযোগে গত বুধ ও বৃহস্পতিবার শিশুটিকে ধর্ষণ করেন এক প্রতিবেশী। এমন অভিযোগে সাভার থানায় মামলা করেছে শিশুটির পরিবার। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আরো চার জেলায় বিভিন্ন সময়ে কিশোরীসহ দুজনকে ধর্ষণ ও দুজনকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে গত ২৪ এপ্রিল সংঘবদ্ধ ধর্ষণে এক কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ার অভিযোগে থানায় গত শুক্রবার মামলা করেছেন তার মা। পরে পাঁচ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সাভারের ঘটনায় অভিযুক্ত ইব্রাহীম খলিল ওরফে খলিলউল্লাহকে (২২) শুক্রবার রাতে উপজেলার সাভারের নালিয়াশুর এলাকার জমির আলীর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিনই থানায় ধর্ষণ মামলা করা হয়। খলিল সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার শিবপুর গ্রামের মৃত জাকিরুল ওরফে জাকির হোসেনের ছেলে। মামলার এজাহারের তথ্য মতে, প্রথম দিন সন্ধ্যায় শিশুটিকে তাদের বাসার গোসলখানায় ধর্ষণের পর ঘটনা কাউকে বললে খুন করার হুমকি দেন খলিল। ভয়ে শিশুটি কাউকে কিছু বলেনি। পরে একই সময়ে শিশুটিকে বাসার পেছনে গলিতে নিয়ে ধর্ষণ করেন খলিল। এতে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে মা-বাবাকে ঘটনা খুলে বলে। সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

তরুণীকে আটকে রেখে ধর্ষণ

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় গত ২৪ অক্টোবর সন্ধ্যায় এক তরুণী (১৬) দোকান থেকে মালপত্র কিনে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় তাকে সড়ক থেকে তুলে নিয়ে বাড়িতে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তরুণীর মা সুনামগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল মামলা করেছেন। আদালত বৃহস্পতিবার মামলা গ্রহণ করে জগন্নাথপুর থানার পুলিশকে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন। আসামি মিরজু মিয়া (৩৮) উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের নোওয়াগাঁও গ্রামের সুনু মিয়ার ছেলে।

শ্রীনগরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন, আটক ২

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার পশ্চিম বেজগাঁও গ্রামে গত মঙ্গলবার রাতে এক নারী (২০) ধর্ষণের শিকার হন বলে অভিযোগ। পরে তিনি ৯৯৯ নম্বরে ফোন করলে শ্রীনগর থানার পুলিশ ধর্ষণে অভিযুক্ত ও তাঁর সহায়তাকারীকে আটক করেছে। তাঁরা হলেন পশ্চিম বেজগাঁওয়ের বাসুদেবের ভাড়াটিয়া ধর্ষণে অভিযুক্ত জরিপ আলী (২৪) ও সহায়তাকারী অটোচালক রফিকুল ইসলাম (২২)।

নন্দীগ্রামে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নে বুধবার রাতে এক তরুণীকে (১৬) ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে আল আমিন (২৫) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার চৌদীঘি গ্রামের অমেদ আলীর ছেলে। এ ঘটনায় তরুণীর বাবা বৃহস্পতিবার রাতে থানায় মামলা করেন।

[প্রতিবেদনটি তৈরিতে তথ্য দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিরা]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা