kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

পদ্মা সেতুর দৃশ্যমান ৫১০০ মিটার

বৈরী আবহাওয়ায় ৩৪তম স্প্যান বসল এক দিন পর

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৬ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈরী আবহাওয়ায় ৩৪তম স্প্যান বসল এক দিন পর

পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে ৭ ও ৮ নম্বর পিলারের ওপর গতকাল বসানো হয় ৩৪তম স্প্যান। এর মধ্য দিয়ে সেতুর পাঁচ কিলোমিটারের বেশি অংশ দৃশ্যমান হলো। ছবি : কালের কণ্ঠ

পদ্মা সেতুর ৩৪তম স্প্যান ‘২-এ’ বসানো হয়েছে গতকাল বরিবার। মাওয়া প্রান্তের ৭ ও ৮ নম্বর খুঁটির স্প্যানটি বসানোয় দৃশ্যমান হলো সেতুর পাঁচ হাজার ১০০ মিটার। এর আগে শনিবার বৈরী আবহাওয়ার কারণে দিনভর চেষ্টা করেও স্প্যানটি বসানো সম্ভব হয়নি।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) মো. আব্দুল কাদের জানান, আজ (গতকাল) সকাল সাড়ে ১০টায় ৩৪তম স্প্যানটি বসানোর কাজ শেষ হয়।

জানা গেছে, আগামী ৩০ অক্টোবর ২ ও ৩ নম্বর খুঁটির ওপর ৩৫তম স্প্যান এবং ৪ নভেম্বর ৩৬তম স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। আগামী ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে সব স্প্যান বাসানোর নির্দেশনা রয়েছে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। সব মিলিয়ে ৪২টি খুঁটির ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতুটি নির্মাণ করা হচ্ছে। সব কটি খুঁটি এরই মধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে। মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কম্পানি (এমবিইসি) এবং নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেক প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। দুটি সংযোগ সড়ক ও অবকাঠামো নির্মাণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মোমেন লিমিটেড।

বহুমুখী এ সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এর কাঠামো। ২০২১ সালে এটি খুলে দেওয়ার কথা।

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা