kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

ওবায়দুল কাদের বললেন

অপরাধী যত বড় নেতাই হোক বিচারের আওতায় আনা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অপরাধী যত বড় নেতাই হোক বিচারের আওতায় আনা হবে

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ধর্ষণ এক ধরনের সন্ত্রাস। ধর্ষণ, হত্যার সঙ্গে জড়িত কোনো অপরাধীকে সরকার কখনো ন্যূনতম ছাড় দেয়নি। অপরাধী যেই হোক, তার আসল পরিচয় দুর্বৃত্ত। দুর্বৃত্তের দলীয় কোনো পরিচয় নেই। অপরাধীর ব্যাপারে শেখ হাসিনা জিরো টলারেন্স নীতি ধারণ করেন। আমরা আন্দোলনের রাজনৈতিক ইস্যু তুলে নিতে কাউকে অ্যালাউ করিনি। ধর্ষণকে রাজনৈতিক ট্যাগ দিয়ে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করলে বিচার বাধাগ্রস্ত হতে পারে।’

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ধর্ষণের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সামাজিকভাবে চিহ্নিত সন্ত্রাসী যাতে দলে স্থান না পায় সেদিকেও সতর্ক থাকতে হবে। অপরাধী যত বড় নেতাই হোক তাকে বিচারের আওতায় আনা হবে বলেও আশ্বস্ত করেন সেতুমন্ত্রী।

সেতুমন্ত্রী দাবি করেন, সরকার স্বপ্রণোদিত হয়ে সব অপরাধের বিরুদ্ধে বিচার কার্যক্রম শুরু করেছে। কারো প্রতি পক্ষপাত দেখায়নি। তিনি সবাইকে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘প্রতিবাদ করার দরকার নেই। সরকার ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচার করছে, কাউকে রেহাই দিচ্ছে না। প্রতিবাদ বিচারের জন্য করা হচ্ছে। সরকার তো এ ঘটনার বিচার করছে। এ অবস্থায় যে জন্য প্রতিবাদ, সরকারই তো অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা