kalerkantho

বুধবার । ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১২ সফর ১৪৪২

ভিডিও কনফারেন্সে কাদের

সিনহা হত্যা নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি চক্র

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ও গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১০ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ড নিয়ে একটি অশুভ চক্র অপপ্রচার চালাচ্ছে, উসকানি দিয়ে যাচ্ছে ও ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘তারা (অপপ্রচারকারী) ভাবছে, এ থেকে সুবিধা আদায় করবে, সরকার হটিয়ে দেবে।’

গতকাল রবিবার সকালে ঢাকায় নিজের বাসা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে গোপালগঞ্জে সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএর কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় গোপালগঞ্জের উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, রাজনৈতিক পরিচয় কোনো অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা প্রমাণ করেছেন। তিনি বলেন, সিনহা হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এরই মাঝে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। শেখ হাসিনার সরকার প্রতিটি হত্যাকাণ্ডের বিচারে সোচ্চার থেকেছে। অপরাধীদের দলীয় পরিচয়ে বাঁচানোর চেষ্টা করেনি।

অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান, স্বাস্থ্য খাতে জেকেজি-রিজেন্ট গ্রুপের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান এবং অন্য যেসব অনিয়ম হচ্ছে, সেসবের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর জন্য সরকারকে আগে কেউ বলে দেয়নি। কারো পরামর্শে সরকার অভিযান পরিচালনা করেনি। শেখ হাসিনার সরকার নিজেই এসব অনিয়ম উদ্ঘাটন করেছে। তার ম্যাকানিজম দিয়ে অনিয়ম ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেনি। স্বতঃপ্রণোদিত হয়েই অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। এবং এ অভিযান বিভিন্ন খাতে অব্যাহত থাকবে।’

বিএনপির সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজ যাঁরা অনিয়ম নিয়ে কথা বলছেন, তাঁদের সময়ে বাংলাদেশ দুর্নীতিতে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। দুর্নীতিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার পাশাপাশি দলীয় গঠনতন্ত্র থেকে দুর্নীতিবিষয়ক ধারা বাতিল করে বিএনপি আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজের দল হিসেবে নিজেদের স্বীকৃতি দিয়েছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা