kalerkantho

বুধবার । ১২ কার্তিক ১৪২৭। ২৮ অক্টোবর ২০২০। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শেষ দিনেও কর্মস্থলে ব্যস্ত সময় কাটালেন মেয়র নাছির

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৬ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেষ দিনেও কর্মস্থলে ব্যস্ত সময় পার করেছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। গতকাল বুধবার দুপুরে নগরের থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রাম (টিআইসি) মিলনায়তনে সিটি করপোরেশন কর্মকর্তা-কর্মচারী আয়োজিত প্রীতি সম্মিলনে অংশ নেন তিনি। এরপর চসিকে যান। দাপ্তরিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি আগত বিভিন্ন ব্যক্তি ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন। রাতের অনেকটা সময়ও মেয়র কর্মস্থলে ব্যস্ত সময় কাটান।

এদিকে চসিকের প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন যোগদান করবেন আজ বৃহস্পতিবার থেকে। গতকাল বুধবার বিকেলে তিনি নিজেই কালের কণ্ঠকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আজ সকাল সাড়ে ৯টায় চসিক কার্যালয়ে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য যাবেন খোরশেদ আলম সুজন।

গতকাল দুপুরে টিআইসি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিদায়ি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘চসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ৩১ বছরের সমস্যার সমাধান করে দিয়েছি। সাড়ে তিন বছর চেষ্টা করে প্রবিধানমালা অনুমোদন করিয়েছি। গ্রেডেশন তালিকা টাঙিয়ে দিয়েছি। এ চসিকের জন্য আরেকটা নতুন অর্গানোগ্রাম প্রক্রিয়াধীন আছে। যখন দায়িত্ব নিয়েছিলাম চসিকের কর্মীদের বেতন আসত মাসে ৯ কোটি টাকা, এখন তা ১৯ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। নিয়মিত বেতন-ভাতা দিতে সমর্থ হয়েছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি বুঝেছিলাম নগরবাসীর প্রত্যাশা ও চসিকের দায়িত্বের জন্য ঐক্য দরকার। ১০-১১ জন কাউন্সিলর ভিন্ন দলের। আমি চিন্তা করেছি তাঁরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত। আমার উচিত তাঁদের দায়িত্ব পালনে সহযোগিতা করা। চসিকের অনেক কর্মচারী আমার প্রতিদ্বন্দ্বীর পক্ষে নির্বাচনে কাজ করেছেন। আমি নির্বাচিত হওয়ার পর বার্তা দিয়েছি চসিকের অর্পিত দায়িত্ব সততা, আন্তরিকতার সঙ্গে পালন করতে। ’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চসিকের প্রধান নির্বাহী মো. সামশুদ্দোহা। এতে চসিকের বিভিন্ন বিভাগের প্রধান এবং প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলররা বক্তব্য দেন।

মন্তব্য