kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে টিআইবি

বাংলাদেশের মান সম্মান ডুবিয়েছেন এমপি পাপুল

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানবপাচার, অর্থপাচার ও ঘুষের অভিযোগে বাংলাদেশের একজন সংসদ সদস্যের কুয়েতে গ্রেপ্তার ও বিচারের মুখোমুখি হওয়া সার্বিকভাবে বাংলাদেশের রাজনীতি, সমাজ ও জনগণের মর্যাদা ক্ষুণ্ন করেছে বলে মন্তব্য করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

সংস্থাটি বলেছে, এটি বাংলাদেশ ও কুয়েতের সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে। এ ছাড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের সুনামও ক্ষুণ্ন করতে পারে।

গতকাল রবিবার টিআইবি ও কুয়েত ট্রান্সপারেন্সি সোসাইটির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘সংঘবদ্ধ অপরাধ মোকাবেলায় নাগরিক সমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক ওই আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, কুয়েতে বাংলাদেশি অভিবাসীরা চাকরি হারাতে পারেন এবং তাঁদের প্রত্যাবাসন করতে হতে পারে।

দুর্নীতি প্রতিরোধে আইন প্রয়োগের দাবি জানিয়ে টিআইবি নির্বাহী পরিচালক বলেন, ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনগণের মাথা তুলে দাঁড়ানোর এখনই সময়। ব্যবসা ও রাজনীতি আলাদা করতে মৌলিক সংস্কার প্রয়োজন।’ হঠাৎ সংসদ সদস্য (এমপি) হওয়া পাপুল গত ৬ জুন কুয়েতে মানবপাচার, অর্থপাচার, শ্রমিক নিপীড়নের অভিযোগে গ্রেপ্তার হন। বর্তমানে তিনি কুয়েতের কারাগারে আছেন। আগামী ১৯ জুলাই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের শুনানি হওয়ার কথা।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের জন্য এটি অত্যন্ত বিব্রতকর। একজন সংসদ সদস্য হিসেবে তাঁর দায়িত্ব অপরাধ প্রতিরোধে উদ্যোগ নেওয়া। আর তাঁর বিরুদ্ধে ঘৃণ্য অপরাধের অভিযোগ উঠেছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা