kalerkantho

বুধবার । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৭  মে ২০২০। ৩ শাওয়াল ১৪৪১

ব্র্যাকের জরিপ

আয়ের উৎস নেই বিদেশফেরত ৮৭ শতাংশের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারির সময়ে দেশে ফেরত আসা অভিবাসী কর্মীদের ৮৭ শতাংশেরই এখন আয়ের কোনো উৎস নেই। নিজের সঞ্চয় দিয়ে তিন মাস বা তার বেশি সময় চলতে পারবেন—এমন সংখ্যা ৩৩ শতাংশ। ৫২ শতাংশ বলছে, তাদের জরুরি ভিত্তিতে আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচির ‘বিদেশফেরত অভিবাসী কর্মীদের জীবন ও জীবিকার ওপর কভিড-১৯ মহামারির প্রভাব’ শীর্ষক জরিপে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়।

করোনা সংক্রমণ শুরুর পর ফেরত এসেছেন এমন ৫৫৮ জন প্রবাসী কর্মীর সঙ্গে কথা বলে জরিপটি পরিচালনা করা হয়। তাঁদের মধ্যে ৮৬ শতাংশই ফিরেছে মার্চে। মধ্যপ্রাচ্যের সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার, বাহরাইন, ওমান ও কুয়েত থেকে ফেরে ৪৫ শতাংশ। বাকিরা মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ইতালি, মালদ্বীপসহ বিভিন্ন দেশ থেকে ফেরে।

ঢাকা, টাঙ্গাইল, মুন্সীগঞ্জ, শরীয়তপুর, নরসিংদী, সিলেট, সুনামগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, খুলনা ও যশোরে অবস্থানরত ওই প্রবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন ব্র্যাকের ২০ কর্মী।

জরিপে অংশগ্রহণকারী ৪০ শতাংশ বলেছে, করোনার কারণে তারা দেশে ফিরে আসতে বাধ্য হয়েছে। ৩৫ শতাংশ বলেছে, তারা ছুটিতে এসেছিল। ১৮ শতাংশ বলেছে, তারা পারিবারিক কারণে এসেছে। ৭ শতাংশ বলেছে, তাদের ফেরার সঙ্গে করোনার কোনো সম্পর্ক নেই।

কোয়ারেন্টিনের বিষয়ে ৮৪ শতাংশ বলেছে, দেশে ফিরে তারা ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে ছিল। ১৪ শতাংশ বলেছে, তারা কোয়ারেন্টিন ঠিকমতো মানতে পারেনি। ২ শতাংশ বলেছে, তারা এক সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে ছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা