kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

রাজবাড়ীতে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

গ্রেপ্তারের ১২ দিন পরই জামিন পেল আসামি!

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১২ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজবাড়ীর চাঞ্চল্যকর সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় এক আসামি গ্রেপ্তার হওয়ার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ১২ দিন পরই আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। গতকাল আসামিপক্ষের আইনজীবী রাজবাড়ীর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে গ্রেপ্তারকৃত মফিজ মিয়ার জামিন আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে জামিন মঞ্জুর করেন। তবে একই অভিযোগে এক মাস আগে গ্রেপ্তার হওয়া জিয়ারুল জেলহাজতে আছেন।

গত ১৩ ডিসেম্বর রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার এক গৃহবধূ শ্বশুরের সঙ্গে বাবার বাড়ি থেকে শ্বশুরবাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে বালিয়াকান্দির তাইজুল ইসলামসহ একদল দুষ্কৃতকারী তাঁকে অপহরণ করে। পরে তারা গৃহবধূকে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে ঢাকার সাভারে আটকে রেখে প্রায় এক মাস ধর্ষণ করে। র‌্যাবের সহায়তায় ১৭ জানুয়ারি সাভার থেকে গৃহবধূকে উদ্ধার করে তাঁর পরিবার। এ ঘটনায় রাজবাড়ীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে তাইজুল ইসলাম, মাগুরার মহেষপুরের জিয়ারুল, যশোরের অভয়নগরের মওদুদ খন্দকার ও গাজীপুরের কালীগঞ্জ এলাকার মফিজ মিয়াকে আসামি করে মামলা করেন গৃহবধূর বাবা। আদালত অভিযোগ গ্রহণ করে কালুখালী থানাকে এজাহার হিসেবে নেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে থানায় মামলা রেকর্ডের পর ম্যাজিস্ট্রেট গৃহবধূর জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা