kalerkantho

সোমবার । ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ১  জুন ২০২০। ৮ শাওয়াল ১৪৪১

রাজধানীর অপরাধজগতে অস্থিরতা!

অস্ত্র মামলায় শাকিলের তিন দিনের রিমান্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের সহযোগী মাজহারুল ইসলাম শাকিলের বিরুদ্ধে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। এ মামলায় তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিন হেফাজতে (রিমান্ডে) পেয়েছে পুলিশ। গতকাল রবিবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত তাঁর রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

দুবাই থেকে ঢাকায় আসার পর শাকিলকে গত শনিবার ভোরে মোহাম্মদপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। র‌্যাব জানায়, শাকিল ঢাকায় এক গডফাদারকে হত্যার ‘মিশন’ নিয়ে এসেছিলেন। তাঁর কাছ থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন ও ছয়টি গুলি উদ্ধার করা হয়।

অপরাধজগতে অস্থিরতা : খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত সেপ্টেম্বর মাসে দেশে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর রাজধানীর অপরাধজগতে অস্থিরতা তৈরি হয়। অনেকে গা-ঢাকা দিয়েছেন। কেউ কেউ গোপনে তৎপর। সম্প্রতি ঢাকার অপরাধজগৎ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য শীর্ষ দুই সন্ত্রাসী তৎপর হয়ে উঠেছেন। তাঁদের একজন কারাবন্দি কিলার আব্বাস, অন্যজন দুবাইয়ে আত্মগোপনে থাকা জিসান আহমেদ মন্টি। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, কিলার আব্বাস ও জিসান এ মুহূর্তে আন্ডারওয়ার্ল্ডে সবচেয়ে বেশি তৎপর। এর আগে জিসানের আরো দুই সহযোগীকে দুটি একে-২২ এবং গুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। সে সময় ডিবির জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা বলেছিলেন, একজন ঠিকাদার ও একজন রাজনৈতিক নেতাকে হত্যার জন্য এসব অস্ত্র সংগ্রহ করেছিলেন তাঁরা। শাকিলকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের কথা জানিয়ে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম কালের কণ্ঠকে বলেন, শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ঢাকার এক ‘গডফাদারকে’ হত্যা করে অপরাধজগতের দখল নিতে দুবাই থেকে ঢাকায় আসেন শাকিল। তবে র‌্যাবের তৎপরতায় তাঁর সে ‘মিশন’ ব্যর্থ হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা