kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৯ চৈত্র ১৪২৬। ২ এপ্রিল ২০২০। ৭ শাবান ১৪৪১

দুর্নীতির অভিযোগ অস্বীকার করলেন এমপি রতন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জ-১ আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযাগ অস্বীকার করেছেন। অবৈধ সম্পদ অর্জন ও বিদেশে অর্থপাচারের অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার সেগুনবাগিচায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) প্রধান কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকে। অনুসন্ধান টিমের প্রধান সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে দুদক কর্মকর্তারা সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তাঁকে হয়রানি করা হচ্ছে দাবি করে রতন বলেন, ‘একটি পক্ষ রাজনৈতিকভাবে আমাকে হয়রানি করছে। আমি নিজেই যেখানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলাম, সেখানে আমার বিরুদ্ধেই দুর্নীতির অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।’ তাঁর কোনো অবৈধ সম্পদ নেই দাবি করে তিনি আরো বলেন, ‘বিদেশে আমার কোনো বাড়ি নেই। উল্টো আমি আওয়ামী লীগের ৩০টি অফিস করে দিয়েছি। বিপদে-আপদে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। আমার সুনাম নষ্ট করতেই এমন মিথ্যা অভিযোগ দুদকে করা হয়েছে।’

গত ১০ ফেব্রুয়ারি আওয়ামী লীগের এই এমপিকে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল দুদক কার্যালয়ে হাজির হয়ে বক্তব্য প্রদানের জন্য। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ—বিতর্কিত ঠিকাদার জিকে শামীমসহ বিভিন্ন প্রভাবশালীর সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে অনিয়মের মাধ্যমে সরকারি অর্থ আত্মসাৎ, ক্যাসিনো ব্যবসা ও অন্যান্য অবৈধ কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে শত শত কোটি টাকা পাচার এবং জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা