kalerkantho

রবিবার  । ১৫ চৈত্র ১৪২৬। ২৯ মার্চ ২০২০। ৩ শাবান ১৪৪১

রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্সে রহস্যজনক চুরি

জমির দলিল ও ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর তেজগাঁওয়ে রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্সে রহস্যজনক চুরির ঘটনা ঘটেছে। দুর্বৃত্তরা জমির শত শত দলিল, বালাম বই, কম্পিউটারের হার্ডডিস্কসহ গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র নিয়ে গেছে। এমনকি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরাও নিয়ে গেছে চোরচক্র। গত বুধবার সন্ধ্যা থেকে বৃহস্পতিবার ভোরের মধ্যে কোনো একসময় পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই চুরির ঘটনার নেপথ্যে সংশ্লিষ্ট অফিসকর্মীদের হাত রয়েছে বলে ধারণা করছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সে সূত্রে চোরচক্রকে সহযোগিতাকারী হিসেবে রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্সের অফিসকর্মী ও নিরাপত্তারক্ষীদের পাশাপাশি কর্মকর্তাদেরও দু-একজনকে সন্দেহে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছেন তদন্তসংশ্লিষ্টরা।

গত দুই দিনেও ঘটনায় জড়িত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। তবে এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে বাদী হয়ে বাড্ডা রেজিস্ট্রি অফিসের সাবরেজিস্ট্রার মনিরুল ইসলাম তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, কমপ্লেক্সের দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ তলার গ্রিল কেটে দুর্বৃত্তরা অফিসের মূল্যবান শত শত দলিল, বালাম বই, কম্পিউটারের হার্ডডিস্ক ও সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নিয়ে গেছে।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি আলী হোসেন খান গতকাল শুক্রবার রাতে কালের কণ্ঠকে জানান, বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত শুরু করেছেন তাঁরা। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার বা নথিপত্র উদ্ধার করা যায়নি।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ওসি আরো বলেন, রেজিস্ট্রেশন কার্যালয়ের পেছনে দলিল লেখকদের টিনের চাল বেয়ে কমপ্লেক্স ভবনের দোতলার কলাপসিবল গেটের গ্রিল কেটে চোরের দল ভেতরে ঢুকে থাকতে পারে। ভবনের দোতলায় বাড্ডা ও তৃতীয় তলায় উত্তরা থানার সাবরেজিস্ট্রারের কার্যালয়ের ফটকের তালা ভাঙা পাওয়া যায়। কক্ষ দুটিতে দুটি স্টিলের আলমারি ও ড্রয়ার ভাঙা ছিল। তৃতীয় তলায় জেলা রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ের ফটকের তালাও ভাঙা পাওয়া গেছে। সেখানে খোয়া গেছে সংরক্ষিত সিসি ক্যামেরা ও ডিভিআর। তাই সিসি ক্যামেরায় কোনো ভিডিও ফুটেজ পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা