kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

নরসিংদীতে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ

যৌন নির্যাতনের আরো চার অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নরসিংদীর চিনিশপুরে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বলাৎকারের অভিযোগে এক মাদরাসা শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে। বাগেরহাটের কচুয়ায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছে দুজন। কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে নড়াইলের লোহাগড়ায়। নাটোরের বড়াইগ্রামে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শিক্ষকের বিরুদ্ধে। প্রতিনিধিদের খবরে বিস্তারিত—

নরসিংদী : চিনিশপুর ইউনিয়নে তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার যুবকের নাম আল-আাামিন (৩৫)। তিনি পলাশ উপজেলার মাঝেরচরের বাসিন্দা। মামলার এজাহারের উদ্ধৃতি দিয়ে নরসিংদী সদর মডেল থানার ওসি মো. সৈয়দুজ্জামান জানান, রবিবার সন্ধ্যায় শিশুটি বাড়ি ফেরার পথে কলা ব্যবসায়ী আল আমিন তাকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

মুন্সীগঞ্জ : সিরাজদিখানে পূর্ব রাজদিয়া দারুস সালাম কওমি মাদরাসার এক শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগে শিক্ষক রবিউল হাসানকে আটক করেছে পুলিশ। অভিযোগ অনুযায়ী, গত ৭ জানুয়ারি ওই ছাত্র নির্যাতনের শিকার হয়।

লোহাগড়া : কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, জয়পুর ইউনিয়নের ওই কিশোরী গত রবিবার সন্ধ্যায় চাচার বাড়ি থেকে নিজের বাড়ি ফিরছিল। পথে তাকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করেন চর আড়িয়ারা গ্রামের আলামিন মোল্যা (১৮)। তাঁকে সহযোগিতা করে একই গ্রামের শিহাব, মকুল, জাহাঙ্গীর ও ইয়াসিন।

নাটোর : বড়াইগ্রামের মাঝগ্রামে আনিসুর রহমান নামের এক স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। আনিসুর রহমান মাঝগ্রামের বাসিন্দা এবং মাঝগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক। অভিযোগ অনুযায়ী, এক ছাত্রের লেখাপড়ার বিষয়ে কথা বলতে তার মাকে এক প্রতিবেশীর বাড়িতে ডেকে পাঠান আনিসুর। সেখানে যাওয়ার পর ওই নারীকে তিনি ধর্ষণ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা