kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন

উন্নত ঢাকা গড়তে চাই

মতবিনিময়সভায় তাপস ♦ দক্ষিণ সিটি নিয়ে পাঁচ পরিকল্পনা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঢাকাকে উন্নত নগরী গড়ার অঙ্গীকার করেছেন আসন্ন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেন, ‘উন্নত দেশ গড়তে প্রয়োজন উন্নত রাজধানী। বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাকে আমরা উন্নত নগরী হিসেবে গড়তে চাই।’

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে মহানগর নাট্যমঞ্চে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি আয়োজিত যুবলীগের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি। যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরসের সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাসান খান নিখিলের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু।

এ সময় তাপস উন্নত ঢাকা গড়তে পাঁচটি পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে—ঐতিহ্য ঢাকা, সুন্দর ঢাকা, সচল ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা ও উন্নত ঢাকা।

পাঁচ পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে শেখ তাপস বলেন, প্রথমত ঐতিহ্যের ঢাকা। দুটি নদীর অববাহিকায় স্থাপিত পুরান ঢাকার ঐতিহ্য সংরক্ষণ করা হবে। দ্বিতীয়ত, সুন্দর ঢাকা বিনির্মাণ। ঢাকাকে বায়ুদূষণমুক্ত ও সবুজায়ন করা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে ছেলেমেয়েদের খেলার জন্য পর্যাপ্ত খেলার মাঠ ও পার্কের ব্যবস্থা করা হবে। তৃতীয়ত, সচল ঢাকা গড়া। ঢাকার এক এলাকা থেকে আরেক এলাকায় পৌঁছাতে কত সময় লাগে? সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এ সংগ্রামে লিপ্ত হতে হয়। সেই ঢাকাকে আমরা সচল ঢাকায় রূপান্তর করব।

নারীদের জন্য নিরাপদ ঢাকা গড়ার কথা উল্লেখ করে তাপস বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বোন যখন ধর্ষিত হয়, তখন আমাদের বুকে রক্তক্ষরণ হয়। এই ঢাকা শহরে আমাদের মা-চাচি ও বোনেরা নিরাপদে তাঁদের গন্তব্যে যেন পৌঁছাতে পারেন, স্বশাসিত ঢাকার মাধ্যমে আমরা সেই ব্যবস্থা করব।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু বলেছেন, ‘সিটি নির্বাচন মামুলি বিষয় নয়, রাজনৈতিক যুদ্ধ হিসেবে এটাকে আমরা নিয়েছি। যদিও বিএনপি এরই মধ্যে পরাজয় বরণ করতে শুরু করেছে। ভোটারদের কাছে ভোট না চেয়ে, ভোটের আগেই কারচুপির অভিযোগ তুলছে, ইভিএমের বিরোধিতা করছে। তার পরও প্রতিপক্ষকে দুর্বল ভাবব না। তাদের সামনে থেকেই ভোটের মাঠে মোকাবেলা করব।’

সভাপতির বক্তব্যে শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, ‘তাপস কখনো কথার রাজনীতি করেন না, কাজের রাজনীতি করেন। যাঁরা ঢাকা-১০ আসনে বসবাস করেন, তাঁরা সেটা জানেন। সিটি নির্বাচনেও তিনি যেসব পরিকল্পনা করেছেন, তার পুঙ্খানুপুঙ্খ বাস্তবায়ন করবেন, এটা আমি জানি। যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে বিনয়ী হয়ে ভোট চাইতে হবে। তাপস নির্বাচিত হলে ঢাকার চেহারা পরিবর্তন হয়ে যাবে।’

মন্তব্য