kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

টাঙ্গাইল শহর উত্তপ্ত চলছে ১৪৪ ধারা

সাবেক এমপি রানার ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী কর্মসূচির বিরোধিতা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি    

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানার বড় ভাই জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান খান বাপ্পীর মৃত্যুবার্ষিকীর কর্মসূচি নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে টাঙ্গাইল। মৃত্যুবার্ষিকী কর্মসূচির বিপক্ষে ‘নির্যাতিত আওয়ামী পরিবারের’ ব্যানারে খান পরিবার-বিরোধীরা পাল্টা কর্মসূচি দিয়েছে। ফলে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে স্থানীয় প্রশাসন টাঙ্গাইল শহরে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে আগামীকাল শনিবার তিন দিন প্রতিদিন ভোর ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে। এ সময় শহরের শহীদ মিনার, শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যান, পুরনো বাসস্ট্যান্ড, ভিক্টোরিয়া রোড, নিরালা মোড়, মেইন রোডসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে সভা, সমাবেশ, মিছিল, মাইকিংসহ সব কার্যক্রম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে গতকাল সকালে টাঙ্গাইল শহরের কলেজপাড়ায় সাবেক এমপি রানার বাসার সামনে থেকে একটি শোকযাত্রা বের করা হয়। পুলিশ আয়োজকদের ১৪৪ ধারার বিষয়টি জানালে তারা স্থান ত্যাগ করে।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালের ২১ নভেম্বর সন্ত্রাসী হামলায় টাঙ্গাইল শহরের কলেজপাড়ার নিজ বাড়ির কাছেই খুন হন রানার বড় ভাই বাপ্পী। তাঁর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে ‘শহীদ আমিনুর রহমান খান বাপ্পী স্মৃতি সংসদ’। কর্মসূচির মধ্যে ছিল বাপ্পীর কবর জিয়ারত, তাঁর স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শোকযাত্রা এবং পরদিন শুক্রবার বিকেলে স্থানীয় শহীদ মিনারে আলোচনাসভা।

এদিকে ‘নির্যাতিত আওয়ামী পরিবার’ ব্যানারে খান পরিবারের বিরোধীরা একই সময় একই স্থানে পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণা করে। তাদের কর্মসূচির মধ্যে ছিল বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আহমেদ হত্যার বিচারের দাবিতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও শহীদ মিনারে সমাবেশ। পরদিন শুক্রবার বিকেলে বিক্ষোভ মিছিল শেষে শহীদ মিনারে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, অটোটেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সমাবেশ। এ ছাড়া শনিবারও বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের ডাক দেয় তারা।

পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘিরে গত বুধবার রাত থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে টাঙ্গাইল শহর। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে শহরের বিভিন্ন দোকান মালিক, ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে। আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রশাসন তিন দিন শহরে ১৪৪ ধারা জারি করে। বুধবার রাতে শহরে এ ব্যাপারে মাইকিং করা হয়।

মন্তব্য