kalerkantho

রবিবার । ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৭ রবিউস সানি                    

বিএসএফের গুলি, ২ বাংলাদেশি নিহত

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি   

১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিএসএফের গুলি, ২ বাংলাদেশি নিহত

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলায় ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে (বিএসএফ) দুই বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছে। গত রবিবার রাতে মৃত্যু হয় তাদের। দুজনই গরু আনতে ভারতের সীমান্তে প্রবেশ করেছিল।

নিহত দুজন হলেন উপজেলার মেঘাদল গ্রামের বঙ্গ সুরুজ আলীর ছেলে উকিল মিয়া (৩০) ও মাটিফাটা গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে খোকন মিয়া (২৫)।

বিজিবি, পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, গত রবিবার রাতে কয়েকজন মিলে গরু আনতে ভারতের মারিংপাড়া এলাকায় যায়। ফেরার পথে বিএসএফ সদস্যরা তাদের ধাওয়া দেয়। একপর্যায়ে গুলি চালায়। এতে উকিল মিয়া ও খোকন মিয়া গুলিবিদ্ধ হন। আহত অবস্থায় উকিল মিয়াকে তাঁর সহযোগীরা জঙ্গল থেকে উদ্ধার করে পানবাড়ী এলাকা পর্যন্ত নিয়ে আসে। পরে সেখানে মৃত্যু হলে তাঁকে ফেলে রেখে বাকিরা চলে আসে। অন্যদিকে মারিংপাড়ার একটি সেতুর নিচে মৃত্যু হয় খোকন মিয়ার। এরপর গতকাল সোমবার বিজিবি সদস্যরা দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠান।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আবুজল মিয়া জানান, চোরাই পথে গরু নিয়ে ফেরার সময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রেজ্জাক মজনু জানান, স্থানীয় কিছু বাসিন্দা প্রায়ই চোরাই পথে গরু আনতে ভারতের সীমান্তে অনুপ্রবেশ করে। 

এদিকে বিষয়টি নিয়ে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে গতকাল পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে বিজিবি কর্মকর্তারা ঘটনার প্রতিবাদ জানান। বৈঠকে নেতৃত্ব দেন ময়মনসিংহের ৩৯ বিজিবির অধিনায়ক শহিদুর রহমান এবং ২৬ বিএসএফের অধিনায়ক বিশাল রানে।

বিজিবির কর্ণঝোড়া ক্যাম্পের কমান্ডার সুবেদার খন্দকার আব্দুল হাই বলেন, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বিএসএফের কাছে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে এবং ঘটনার তদন্ত করে বিচার চাওয়া হয়েছে। বিএসএফ এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা