kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

দুদকের তদন্তের ক্ষমতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুর্নীতির বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নিজ কার্যালয়ে এজাহার দাখিল ও ওই এজাহারের ভিত্তিতে তদন্ত করার ক্ষমতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। রিট আবেদনে দুদক বিধিমালা-২০০৭ (সংশোধনী ২০১৯)-এর ১(২)(ঘঘ)(ছ), ৪, ৯(ক), ১০ নম্বর বিধি ও ফরম-২খ কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির আরজি জানানো হয়েছে।

গতকাল বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুবীর নন্দী দাস ও ব্যারিস্টার নওশীন নাওয়াল এ রিট আবেদন দাখিল করেন। তাঁদের পক্ষে অ্যাডভোকেট আব্দুল কাইউম খান ও মমতাজ পারভীন রিট আবেদন করেন। রিট আবেদনে আইন, স্বরাষ্ট্র ও সংসদ সচিবালয়ের সচিব, দুদক চেয়ারম্যান, পুলিশের আইজি ও দুদক সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে।

অ্যাডভোকেট সুবীর নন্দী দাস জানান, আজ বৃহস্পতিবার রিট আবেদনটি হাইকোর্টে শুনানির জন্য উপস্থাপন করা হবে। দুদকের বিধিমালা সংবিধানের ৩১, ৬৫ (১) অনুচ্ছেদ এবং ফৌজদারি কার্যবিধির ১৫৪ ধারার পরিপন্থী।

রিট আবেদনে বলা হয়েছে, ফৌজদারি কার্যবিধির ১৫৪ ধারা অনুযায়ী যেকোনো ব্যক্তির অভিযোগ থানা রেকর্ড করতে বাধ্য। কিন্তু দুদকের বিধিমালার কারণে এখন আর থানা দুর্নীতিসংক্রান্ত বিষয়ে সরাসরি মামলা রেকর্ড করতে পারে না। কেবল জিডি হিসেবে গ্রহণ করতে পারে। থানা অভিযোগ (জিডি) পাঠিয়ে দেয় দুদকে। পরে তার ভিত্তিতে অনুসন্ধানের পর দুদক মামলা করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা