kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শিক্ষা উপমন্ত্রী বললেন

জাবিতে কনসার্টের টাকার উৎসও তদন্ত করা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা অরাজকতা সৃষ্টি করছে, তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘কারো অধিকার নেই সাধারণ শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন নষ্ট করার। কথায় কথায় তালা দেওয়ার সংস্কৃতি কোনো ধরনের নৈতিকতার মধ্যে পড়ে না। যারা মিথ্যা অভিযোগ দেবে, পরিবেশ নষ্ট করবে, তাদের বিরুদ্ধেও আমরা ব্যবস্থা নেব। আন্দোলনে কনসার্টের অর্থ কিভাবে এলো সেটাও আমরা তদন্ত করব।’

গতকাল শনিবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় পরিস্থিতি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন উপমন্ত্রী।

মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কে কার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে নাটক সাজিয়ে অরাজকতা সৃষ্টি করছে, সেই খবর আমাদের কাছে আছে। যে প্রকল্পে অর্থছাড় হয়নি, সেখানে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ক্যাম্পাসে অস্থির পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে। যেকোনো অন্যায়ের প্রতিবাদ করার অধিকার সবার আছে; কিন্তু অরাজকতা সৃষ্টির অধিকার কারো নেই।’

তিনি বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ জমা দিয়েছে আন্দোলনকারীরা। গত শুক্রবার রাতে শিক্ষামন্ত্রীর একান্ত সচিবের কাছে এ অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। তবে তা এখনো দপ্তরে আসেনি। বর্তমান দুর্যোগপূর্ণ অবস্থা কেটে গেলে এ বিষয়টি আমরা দেখব। অভিযোগের তথ্য-প্রমাণ থাকলে অবশ্যই তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।’

উপমন্ত্রী বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কর্তৃপক্ষ বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে। অথচ অনেকে তালা ভেঙে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা