kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

সোনারগাঁয় পোশাক শ্রমিককে দলবদ্ধ ধর্ষণ

পাঁচজন গ্রেপ্তার

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয় এক পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত সোমবার সন্ধ্যায় কারখানা থেকে বাড়ি ফেরার সময় ধর্ষণের শিকার হন বলে ওই নারী অভিযোগ করেছেন। তিনি সাতজনকে আসামি করে গতকাল মঙ্গলবার সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা করেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন সোনারগাঁ উপজেলার ব্রাহ্মণবাওগাঁ গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে আবু সাইদ (২৫), রেহাজ উদ্দিনের ছেলে ইমরান (২৩), নবী হোসেনের ছেলে রনি মিয়া (২০), আবু সিদ্দিকের ছেলে আবুল হোসেন (৩২), বাগবাড়ী গ্রামের ভুট্টু মিয়ার ছেলে মাসুম (২২)। আরিফ ও জাহাঙ্গীর নামের অভিযুক্ত দুজন পলাতক রয়েছে।

ভুক্তভোগী নারী ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এলাকার একটি পোশাক কারখানার এ কর্মী গত সোমবার সন্ধ্যায় ছুটির পর বাড়ি যাওয়ার জন্য একটি অটোরিকশায় ওঠেন। অটোরিকশার সামনে চালকের পাশের আসনে বসা জাহাঙ্গীর অস্ত্রের মুখে চালককে জিম্মি করে সোনারগাঁর তালতলার দিকে যেতে বাধ্য করেন। বিপদ বুঝতে পেরে চিৎকার করলে জাহাঙ্গীর পেছনের আসনে এসে তাঁর মুখে স্কচটেপ পেঁচিয়ে দেন। এরপর তাঁকে সোনারগাঁর ব্রাহ্মণবাওগাঁ গ্রামের আব্দুল হালিম মিয়ার বাড়ির একটি দোচালা টিনের ঘরে নিয়ে যান। সেখানে সাতজন মিলে রাতভর তাঁকে ধর্ষণ করেন। আশপাশের লোকজন তালতলা ফাঁড়িতে খবর দিলে পুলিশ এসে তাঁকে উদ্ধার করে এবং পাঁচ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা