kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালিত

সাঁওতাল হত্যার বিচার দাবিতে গোবিন্দগঞ্জে বিক্ষোভ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

১০ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে তিন সাঁওতাল হত্যার বিচার দাবি করেছে সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম-ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি। এ দাবিতে গতকাল শুক্রবার সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করা হয়। এসব কর্মসূচি থেকে তিন সাঁওতাল হত্যা মামলার অভিযোগপত্রে সাবেক এমপি কালামসহ গুরুত্বপূর্ণ আসামিদের অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানায় গোবিন্দগঞ্জের আদিবাসী সাঁওতালরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সাঁওতালরা ফেস্টুন, পতাকা হাতে সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম এলাকা থেকে আট কিলোমিটার রাস্তা হেঁটে এসে ঢাকা-দিনাজপুর সড়কের চৌরাস্তা অবরোধ করে রাখে। এ অবরোধ চলে প্রায় এক ঘণ্টা। এ সময় মহাসড়কের দুই পাশে বিশাল যানজটের সৃষ্টি হয়।

সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম-ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ফিলিমন বাসকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জেলা কমিটির সভাপতি মিহির ঘোষ, আদিবাসী বাঙালি সংহতি পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবু, সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম-ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাফরুল ইসলাম প্রধান, সাঁওতাল হত্যা মামলার বাদী থমাস হেমব্রম, আদিবাসী নেত্রী রোমেলা কিসকু, ভূমি সংগ্রাম কমিটির নেতা স্বপন শেখ, ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির নেতা সুফল হেমব্রম  সিপিবি জেলা কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুরাদ জামান রব্বানী, এনজিওকর্মী প্রবীর চক্রবর্তী প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসে বাপ-দাদার পৈতৃক সম্পত্তি উদ্ধার ও তিন সাঁওতাল হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবি জানাতে হচ্ছে। এ থেকে বোঝা যায় বাংলাদেশে আদিবাসীরা কতটা নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে আছে। সাঁওতাল হত্যাকাণ্ডের প্রায় তিন বছর পর চূড়ান্ত অভিযোগপত্রে এজাহারভুক্ত আসামি গোবিন্দগঞ্জ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, মিল কর্মকর্তা, প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ প্রভাবশালীদের নাম না থাকা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। 

মহিমাগঞ্জ সুগার মিল কর্তৃপক্ষ ২০১৬ সালের ৬ নভেম্বর পুলিশ প্রশাসনসহ স্থানীয় প্রভাবশালী সন্ত্রাসীদের দিয়ে উচ্ছেদের নামে আদিবাসীদের বসতবাড়ি, ফসল ও মৎস্য খামারে হামলা চালায়। গুলি ও নির্যাতনে শ্যামল হেমরম, মঙ্গল মার্ডি ও রমেশ টুডু নিহত হন। আহত হয় অনেকে। গত ২৮ জুলাই তিন সাঁওতাল হত্যার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে পেশ করে পিবিআই।

সংবিধানে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতি দাবি

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি জানান, নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সেখানে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল সকালে বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের উদ্যোগে খাগড়াছড়ি সরকারি মহিলা কলেজ এলাকা থেকে একটি পদযাত্রা বের করা হয়। পদযাত্রাটি শহরের শাপলা চত্বরের দিকে আসতে চাইলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। পরে পুরাতন জিপ স্টেশন এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন শোভাযাত্রায় অংশ নেওয়া পাহাড়িরা। কর্মসূচি থেকে আদিবাসীদের ভূমি অধিকার ও সংবিধানে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি জানানো হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা