kalerkantho

বৃষ্টির পানিতে বিদ্যুতের তার তরুণ চিকিৎসকের মৃত্যু

ডেঙ্গুর ভয়ে বৃষ্টি না হওয়ার প্রার্থনা করেন ফেসবুকে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৃষ্টির পানিতে বিদ্যুতের তার তরুণ চিকিৎসকের মৃত্যু

রাজধানীর গ্রিন রোডে বিদ্যুৎস্পর্শে পলাশ দে (২৪) নামের এক তরুণ চিকিৎসক নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। নিহত পলাশ গ্রিন লাইফ হাসপাতালেই কর্মরত ছিলেন। পুলিশ কর্মকর্তা ও সহকর্মীরা জানিয়েছেন, গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের গলিতে বৃষ্টির পানিতে বিদ্যুতের খুঁটির তার ছিঁড়ে পড়ে। এতে খুঁটিও বিদ্যুতায়িত হয়। পলাশ ব্যাংকে যাওয়ার সময় সেখানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

সহকর্মীরা জানিয়েছেন, পলাশ সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার প্রাণনাথপুর গ্রামের গোপাল দের ছেলে। তিনি গ্রিন রোডের ভাড়া বাসায় থাকতেন। বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ থেকে লেখাপড়া শেষ করা পলাশ চার মাস আগে গ্রিন লাইফ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) যোগ দেন। এক দিন আগেও তিনি ফেসবুকে সৃষ্টিকর্তার কাছে বৃষ্টি না দেওয়ার প্রার্থনা করেন। এতে তিনি বৃষ্টি হলে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করেছেন। তরুণ এই চিকিৎসকের রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় সহকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভও প্রকাশ করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে গ্রিন লাইফ হাসপাতালের নির্বাহী কর্মকর্তা মাইনুল ইসলাম বলেন, ডা. পলাশ হাসপাতালের ডিউটি শেষ করে বিকেল ৩টার দিকে রাস্তা পার হয়ে গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের পাশ দিয়ে ব্যাংকে বেতন তুলতে যাচ্ছিলেন। ফুটপাত দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছিটকে যান। স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে প্রায় দেড় ঘণ্টা চিকিৎসা চলার এক পর্যায়ে পরিচয় নিশ্চিত হলে দ্রুত তাঁকে গ্রিন লাইফ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই বিকেল ৫টার দিকে পলাশের মৃত্যু হয়।

কলাবাগান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসাদুজ্জামান বলেন, বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়ে জমে থাকা পানিতে খুঁটি বিদ্যুতায়িত হয়ে ছিল। এতে লেগেই ডাক্তার পলাশ মারা গেছেন।

মন্তব্য