kalerkantho

ধর্ষণের অভিযোগ

তিন জেলায় গ্রেপ্তার ৮

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নড়াইলের লোহাগড়ায় ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এক শিক্ষককে। এদিকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পানিপড়া ও ঝারফুঁকের নামে আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে মসজিদের ইমামসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

নড়াইল : লোহাগড়ায় গত মঙ্গলবার দুপুরে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার রাতে লোহাগড়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনার পর ধর্ষক আকরামকে গ্রেপ্তার করেছে।

শিশুটির মা অভিযোগ করেন, তাঁর মেয়েকে মঙ্গলবার দুপুরে পাঁচুড়িয়া গ্রামের মৃত মোবারেক শেখের ছেলে চটপটি বিক্রেতা আকরাম শেখ (৫৫) পাঁচুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

চাঁদপুর : ফরিদগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের দায়ে মিজানুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার দুপুরে রাজধানীর মাতুয়াইল থেকে ফরিদগঞ্জ পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ জানায়, ওই ছাত্রীকে বাড়িতে প্রাইভেট পড়াত মিজানুর রহমান (৪২)। গত ২৪ জুলাই বেড়ানোর কথা বলে রাজধানীর মাতুয়াইলের একটি বাড়িতে নিয়ে দুই সপ্তাহ ধরে ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে থাকে মিজানুর।

সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) : ফতুল্লায় পানিপড়া ও ঝাড়ফুঁকের নামে আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে মসজিদের ইমাম ফজলুর রহমানকে (৪৫) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একই সময় শিশুটিকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণের চেষ্টা ও পরিকল্পনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অপরাধে ধর্ষকের অপর পাঁচ সহযোগীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা হলো—রমজান আলী, গিয়াস উদ্দিন, হাবিব এ এলাহী হবি, মোতাহার হোসেন ও শরিফ হোসেন।

মন্তব্য