kalerkantho

হাওরাঞ্চলের উন্নয়নে পৃথক পরিকল্পনা গ্রহণের দাবি

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভূপ্রকৃতি বিবেচনায় হাওরাঞ্চলের উন্নয়নে আলাদা পরিকল্পনা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে হাওরবাসী। হাওরাঞ্চলের সাত জেলা নিয়ে ‘হাওরাঞ্চল উন্নয়ন পরিষদ’ গঠন করে এবং আলাদা বাজেটের মাধ্যমে সুষম উন্নয়নের দাবিও জানিয়েছে তারা।

গতকাল শনিবার ‘হাওর অঞ্চলের জীবন-জীবিকা : সরকারি পরিষেবার ভূমিকা’ শীর্ষক এক সংলাপে এসব কথা বলেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিরা। সুনামগঞ্জের একটি রেস্তোরাঁয় দাতা সংস্থা ‘অক্সফাম ইন বাংলাদেশ’ এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিপিডি এ সংলাপের আয়োজন করে।

সংলাপে সরকারি কর্মকর্তা, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবী, আইনজীবী, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, কৃষক, রাজনীতিবিদ, উন্নয়নকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিরা মতামত তুলে ধরেন। বক্তারা উন্নয়নের স্বার্থে দুর্নীতি ও অব্যবস্থা বন্ধেরও দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, হাওরাঞ্চল পাহাড়, সমতল ও নিচু ভূমি নিয়ে গঠিত। কিন্তু এই অঞ্চলের ভিন্ন বৈশিষ্ট বিবেচনায় না নিয়ে সাধারণ এককেন্দ্রিক পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। হাওরাঞ্চলের জীবন-জীবিকার উন্নয়নে পৃথক পরিকল্পনা প্রয়োজন। প্রয়োজনে পার্বত্যাঞ্চলের মতো সাত হাওর জেলা নিয়ে ‘হাওর উন্নয়ন পরিষদ গঠন’ করা যেতে পারে।

বক্তরা আরো বলেন, হাওরের বিশাল নারী গোষ্ঠীকে কর্মপ্রক্রিয়ায় আনা দরকার।

সিপিডির ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, অক্সফাম ইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. দীপঙ্কর দত্ত, নারী নেত্রী শিলা রায় প্রমুখ বক্তব্য  দেন।

 

মন্তব্য