kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

রোহিঙ্গা কিশোরীর মা-বাবা সেজে ধরা বেয়াই-বেয়াইন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রোহিঙ্গা কিশোরীকে নিজেদের মেয়ে বানিয়ে পাসপোর্ট করতে গিয়ে ধরা খেয়েছেন বেয়াই-বেয়াইন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট কার্যালয়ে আটক করার পর থানা-পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। আটক হওয়া বেয়াই-বেয়াইন হলেন জেলার কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের নেমতাবাদ গ্রামের মোখলেছুর রহমান (৫০) এবং আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের গিরিশনগর গ্রামের লিপা বেগম (৩৮)।

রোহিঙ্গা কিশোরীর নাম মরিজান (১৭)। কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পে সে থাকত। পাসপোর্ট করার জন্য ফরমে সে নিজেকে তানজিনা আক্তার বলে উল্লেখ করে। বাবার নাম দেখায় মোখলেছুর রহমান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. জামাল হোসেন কালের কণ্ঠকে জানান, গতকাল দুপুরে পাসপোর্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আসে ওই তরুণী। সঙ্গে থাকা নারী-পুরুষকে মা-বাবা বলে পরিচয় দেয়, কিন্তু তার সঙ্গে কথা বলার সময় সন্দেহ হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা