kalerkantho

শোকের আগস্ট শুরু

‘আমি শেখ মুজিবের কথা বলতে এসেছি’

আবদুল্লাহ আল মামুন   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘আমি শেখ মুজিবের কথা বলতে এসেছি’

‘সমবেত সকলের মতো/আমিও গোলাপ ফুল ভালোবাসি/রেসকোর্স পার হয়ে যেতে সেই সব গোলাপের একটি গোলাপ/গতকাল আমাকে বলেছে/আমি যেন কবিতায় শেখ মুজিবের কথা বলি/আমি তাঁর কথা বলতে এসেছি।’—কবি নির্মলেন্দু গুণ তাঁর ‘আমি আজ কারো রক্ত চাইতে আসিনি’ কবিতায় এ কথাগুলো লিখেছিলেন। বছর ঘুরে বাঙালি জাতির জীবনে এলো সেই শোকাবহ আগস্ট মাস। পৃথিবীর কোনো জাতির ইতিহাসে এমন শোকাবহ আগস্ট আর নেই।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বাঙালির প্রিয় নেতা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর সহধর্মিণীসহ পরিবারের প্রায় সব সদস্যকে ঘাতকচক্র নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল। সেদিন শিশু রাসেলকেও বিপথগামী কিছু সেনা সদস্য বাঁচতে দেয়নি। ভাগ্যগুণে দেশের বাইরে থাকায় সেদিন ঘাতকদের হাত থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। সেই শোকের, লজ্জার, কালিমার আগস্ট মাস শুরু আজ বৃহস্পতিবার। মাসব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শোকাবহ আগস্ট পালন করবে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন। অবশ্য আর কমাস পরই ‘মুজিব বর্ষ’ পালন শুরু হবে। আগামী বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ পূর্ণ হবে। এ উপলক্ষে পালন করা হবে বছরব্যাপী কর্মসূচি। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা শোক পালনের পাশাপাশি সেই প্রস্তুতিও নিচ্ছে।

গতকাল আওয়ামী লীগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাঙালির মহান নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিরঞ্জীব—তাঁর চেতনা অবিনশ্বর। বাঙালি জাতির অস্থি-মজ্জায় মিশে আছেন বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

জাতির পিতা চেয়েছিলেন ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের জনগণের মুক্তির যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তাঁর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যকে জয় করে বিশ্বসভায় একটি উন্নয়নশীল, মর্যাদাবান জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ। বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞচিত্তে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিব বর্ষ’ হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০৪১ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর স্বাধীন বাংলাদেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশে পরিণত করবে। সেই স্বপ্নময় ভবিষ্যৎ বিনির্মাণের জন্য জাতি-ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে সবাইকে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে বাঙালি জাতি গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে পালন করবে জাতীয় শোক দিবস-২০১৯।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গতকাল এক বিবৃতিতে জাতির পিতার শাহাদাতবার্ষিকী, জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে দেশবাসীকে সঙ্গে নিয়ে পালন করার জন্য আওয়ামী লীগ, সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং সংস্থাগুলোর সব স্তরের নেতাকর্মী, সমর্থক, শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন। শোকের মাসে আজকের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বিকেল ৩টায় ধানমণ্ডির ঐতিহাসিক ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে রক্তদান কর্মসূচি। এর আয়োজন করেছে বাংলাদেশ কৃষক লীগ।

মন্তব্য