kalerkantho

ফেরারি আসামির সঙ্গে বিচারকের ছবি ফেসবুকে!

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৭ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুষ্টিয়ার আক্তারুজ্জামান আক্তার নামে এক ‘ফেরারি’ আসামির সঙ্গে ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন এস এম নাসিম রেজা নামের এক বিচারক। কুমারখালীর বাঁশগ্রামের আওয়ামী লীগকর্মী আজম মুন্সী হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত চার নম্বর আসামি আক্তার। দীর্ঘদিন ধরে তিনি পলাতক। এ ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেছে আক্তারের গ্রামের লোকজন। বিচারক নাসিম রেজা বর্তমানে হবিগঞ্জে অতিরিক্ত জেলা জজ হিসেবে কর্মরত। এর আগে ২০১০ সালে তিনি কুষ্টিয়া এবং পরে মেহেরপুরে চাকরি করেছিলেন। সেই সময় আক্তারের সঙ্গে এই বিচারকের সখ্য হয়।

গত ২০ জুন কুষ্টিয়ার কুমারখালীর বাঁশগ্রামে হামলা চালিয়ে আজম মুন্সী নামে এক আওয়ামী লীগকর্মীকে হত্যা এবং দুজনকে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষের লোকজন। ওই হত্যার ঘটনায় ২৭ জনকে আসামি করে কুমারখালী থানায় একটি মামলা হয়। ওই মামলার চার নম্বর আসামি আক্তারুজ্জামান আক্তার। মামলার পর থেকেই পলাতক আক্তারসহ অন্য আসামিরা।

হঠাৎ ১ জুলাই রাত ৮টার দিকে  অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এস এম নাসিম রেজা তাঁর নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডিতে আসামি আক্তারুজ্জামান ওরফে আক্তারের সঙ্গে তোলা একটি ছবি পোস্ট করেন। ‘নতুন গাড়ি পেলাম, সকলের দোয়া চাই’ লিখে পোস্ট করা ওই ছবিতে দেখা যায়, সিলভার রঙের প্রাইভেট কারের (ঢাকা মেট্রো গ-৪২-৭৮১৫) সামনে দুই পাশে দুই যুবককে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন অতিরিক্ত জেলা জজ এস এম নাসিম রেজা। ছবির বাঁ পাশে গেঞ্জি পরে দাঁড়িয়ে থাকা যুবকই কুষ্টিয়ার কুমারখালী থানার হত্যা মামলার পলাতক আসামি আক্তার বলে নিশ্চিত করেছেন কুমারখালী থানার ওসি এস এম মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, ‘আমরা জানার পরপরই হবিগঞ্জ পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। মামলার নথিপত্র হবিগঞ্জ সদর থানার ওসির কাছে পাঠিয়েছি। ওখানকার পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে।’

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এস এম নাসিম রেজা বলেন, ‘সরকার আমাকে একটি নতুন গাড়ি দিয়েছে। কয়েক দিন আগে গাড়িটি আনতে ঢাকায় যাই। ঢাকাতেই আক্তারের সঙ্গে আমার দেখা হয়। সেখান থেকে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে একটি ছবি তুলে আমি নিজেই ফেসবুকে পোস্ট করি। জানতাম না আক্তার হত্যা মামলার আসামি।’

মন্তব্য