kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

সিল্ক রোড ফোরামে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ, বিএনপি

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রধান দুই রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ‘বাংলাদেশ চীন সিল্ক রোড ফোরাম’ গঠন করেছেন। ওই ফোরামে আছেন বাম দলগুলোর প্রতিনিধিরাও। চীনের ‘বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ (বিআরআই)’ বাস্তবায়নকে সহায়তা দিতেই বাংলাদেশে এ ফোরাম গঠন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বাংলাদেশ চীন সিল্ক রোড ফোরামের’ আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরুর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী। তিনি বলেন, ভারত নিজেই এখন চীনের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ন করছে। তাই বাংলাদেশের সঙ্গে চীনের সম্পর্ক উন্নয়নে কারো সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

ড. গওহর রিজভী তাঁর বক্তব্যে চীনের বিআরআইয়ের গুরুত্ব তুলে ধরেন। এ সময় তিনি চীনের ওই উদ্যোগে বাংলাদেশের অংশ নেওয়ার যথার্থতাও তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী ও ঢাকায় চীনের রাষ্ট্রদূত ঝাং জুয়ো এই ফোরাম গঠনকে সময়োপযোগী উদ্যোগ হিসেবে অভিহিত করেছেন। চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ-চীন সম্পর্ক নতুন অধ্যায়ে নিতে দুই দেশের একসঙ্গে কাজ করা উচিত।

তিনি বলেন, ‘আমরা আগামী বছর বাংলাদেশ-চীন কূটনৈতিক সম্পর্কের ৪৫তম বার্ষিকী পালন করব। সহযোগিতা ও যোগাযোগ এবং মানুষে মানুষে সম্পর্ক জোরদারে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টিতে আমাদের একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন।’

বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের দিলীপ বড়ুয়া ওই ফোরামের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, জাসদের হাসানুল হক ইনু ও শরীফ নূরুল আম্বিয়া ছাড়াও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ ওই ফোরামের ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে আছেন।

ফোরামের ৪৯ সদস্যের নির্বাহী কমিটিতে ফিন্যানশিয়াল এক্সপ্রেসের সাংবাদিক শহীদুজ্জামান খান সদস্যসচিব হিসেবে আছেন। সদস্যদের মধ্যে আছেন ড. ওয়াহিদুল ইসলাম, বিমল বিশ্বাস, প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন, জাসদের ড. মোশতাক হোসেন প্রমুখ।

মন্তব্য