kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পাকুন্দিয়ায় ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করায় পাঁচ যুবকের কারাদণ্ড

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায় বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করার দায়ে পাঁচ যুবককে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল রবিবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার কোদালিয়া এসআই শহরউল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে তাদের সাজা দেওয়া হয়।

তিন মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার স্বল্প মারিয়া গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে মনিরুজ্জামান, পাকুন্দিয়া উপজেলার আগরপাট্রা গ্রামের মোকলেছুর রহমানের ছেলে সজিব ও মহিউদ্দিনের ছেলে নাঈমকে এবং ২৮ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে সদর উপজেলার মারিয়া গ্রামের মানিক মিয়ার ছেলে তানভীর আহমেদ ও দড়িবিন্নাটি গ্রামের শ্রীবাস সরকারের ছেলে সীমান্ত সরকারকে। 

জানা যায়, সোমবার টিফিন পিরিয়ডে কয়েকজন ছাত্রী বিদ্যালয়ের সামনের বাজারে নাশতা করতে বের হয়। কিছুদূর যাওয়ার পর পাঁচ যুবক তাদের পথরোধ করে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। এতে ছাত্রীরা প্রতিবাদ করলে যুবকরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের টানা-হেঁচড়া করতে থাকে। ছাত্রীদের চিত্কারে পাশের জমিতে কর্মরত কৃষকরা দৌড়ে এসে যুবকদের হাত থেকে ছাত্রীদের রক্ষা করে। এ সময় যুবকরা কৃষকদের ওপরেও চড়াও হয়। পরে কৃষকরা যুবকদের গণধোলাই দিয়ে আটক করে রাখে। বিষয়টি মোবাইল ফোনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মোকলেছুর রহমানকে  জানানো হলে তিনি পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ছাত্রীদের জিজ্ঞাসাবাদে যুবকরা দোষী প্রমাণিত হয়।

এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও মোকলেছুর রহমান বলেন, ছাত্রীদের জিজ্ঞাসাবাদে ওই পাঁচ যুবক দোষী প্রমাণিত হয়। তাই উত্ত্যক্ত করার দায়ে ওই পাঁচ যুবককে বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা