kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ঘুম থেকে না ওঠায় কোর্টে আনা হয়নি খালেদাকে

নাইকো মামলার শুনানি এবার ৩ মার্চ

বিশেষ প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ঘুম থেকে না ওঠায় তাঁকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা যায়নি। এ কারণে গতকাল বুধবার নাইকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি আগামী ৩ মার্চ পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে গতকাল নাইকো মামলায় খালেদা জিয়াসহ ১১ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন বিষয়ে শুনানি ছিল। তবে কারা কর্তৃপক্ষ খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে না পাঠিয়ে হাজতি পরোয়ানা (কাস্টডি ওয়ারেন্ট) ফেরত পাঠায়। এতে কারা কর্তৃপক্ষ উল্লেখ করে, খালেদা জিয়া ঘুম থেকে না ওঠায় আদালতে হাজির করা সম্ভব হয়নি। পরে আদালত আগামী ৩ মার্চ পর্যন্ত শুনানি মুলতবি করেন। বিশেষ জজ আদালত-৯-এর বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান মামলাটির শুনানি গ্রহণ করছেন।

গত ১২ ফেব্রুয়ারি সর্বশেষ খালেদা জিয়াকে হুইলচেয়ারে করে আদালতে হাজির করা হয়। ওই দিন খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ দাবি করে তাঁর আইনজীবীরা ব্যক্তিগত চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা করানোর নির্দেশদানের প্রার্থনা জানিয়েছিলেন। খালেদা জিয়া দুটি দুর্নীতি মামলায় (জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট) সাজাপ্রাপ্ত হয়ে গত এক বছর ধরে কারাগারে আছেন।

বিগত এক-এগারোর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে খালেদা জিয়া গ্রেপ্তার হওয়ার পর ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় এ মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। পরের বছর ৫ মে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয় দুদক। মামলায় অভিযোগ করা হয়, ক্ষমতার অপব্যবহার করে তিনটি গ্যাসক্ষেত্র পরিত্যক্ত দেখিয়ে কানাডীয় কম্পানি নাইকোর হাতে ‘তুলে দেওয়ার’ মাধ্যমে আসামিরা রাষ্ট্রের প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার ক্ষতি করেছেন। আসামিপক্ষ মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করলে হাইকোর্ট মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেন এবং মামলা কেন বাতিল করা হবে না তা জানাতে রুল জারি করেন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা