kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

'সতর্কতামূলক প্রস্তুতিতে বন্যার ক্ষয়ক্ষতি কমে'

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ জুন, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আগেভাগে সতর্কতামূলক প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ পাওয়া গেলে বন্যার ক্ষয়ক্ষতি অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব। এ ক্ষেত্রে বন্যার গতিপ্রকৃতি, পানির স্তর, পানি বিপৎসীমার ওপরে ওঠাসহ নানা বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ জরুরি। পাশাপাশি স্থানীয়ভাবে অবকাঠামোগত ব্যবস্থাপনাও থাকতে হবে। এ ক্ষেত্রে আনসার ও ভিডিপি সারা দেশে বড় শক্তি হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারে। রাজধানীর হোটেল র‌্যাডিসনে গতকাল রবিবার 'বন্যা প্রস্তুতি কর্মসূচি ও করণীয়' বিষয়ে জাতীয় পর্যায়ের এক কর্মশালায় এমন অভিমত উঠে আসে।

কর্মশালায় আনসার ও ভিডিপির মাধ্যমে গাইবান্ধা ও সিরাজগঞ্জের ৯টি উপজেলায় ৯৪টি ইউনিয়নের দেড় হাজার গ্রামের মানুষের মধ্যে বন্যা ঝুঁকি মোকাবিলার পরীক্ষামূলক একটি কার্যক্রমের নানা সাফল্যচিত্র তুলে ধরা হয়। এ কার্যক্রমের ভিত্তিতে ওই দুই জেলার প্রায় ৩০ লাখ মানুষ এখন বন্যার ব্যাপারে প্রস্তুতি সম্পর্কে সচেতন হয়ে উঠেছে বলে জানানো হয়। সরকার ও দাতাদের সমন্বিত 'কম্প্রিহেনসিভ ডিজেস্টার ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রাম-সিডিএমপি' কার্যক্রমের অর্থায়নে ও বাংলাদেশ ডিজেস্টার প্রিপেয়ার্ডনেস সেন্টার-বিডিপিসির কারিগরি সহায়তায় বাংলাদেশ আনসার ও গ্রামপ্রতিরক্ষা বাহিনী এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। একই কর্মসূচির উদ্যোগে গতকাল অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন দুর্যোগব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। বিশেষ অতিথি স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। বাংলাদেশ আনসারও ভিডিপির মহাপরিচালক মো. নাজিম উদ্দীনের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন সিডিএমপির জাতীয় প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল কাইউম, ইউএনডিপির উপপরিচালক (বাংলাদেশ) নিক বেরেস ফোর্ড, ডিডিএমের মহাপরিচালক রিয়াজ আহম্মেদ, সিডিএমপির প্রকল্প ব্যবস্থাপক পিটার মেডওয়ে, আনসার-ভিডিপির উপমহাপরিচালক এ কে এম মিজানুর রহমান, বিডিপিসির পরিচালক মুহাম্মদ সাইদুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, 'আমাদের ভৌগোলিক ও প্রাকৃতিক অবস্থানগত কারণে বন্যা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। তবে বন্যার পূর্বাভাস পেতে পারলে ও আগাম সতর্কতামূলক প্রস্তুতি সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা গেলে জানমালের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনা সহজ।' মন্ত্রী বলেন, গাইবান্ধা ও সিরাজগঞ্জে আনসার-ভিডিপির মাধ্যমে যে কার্যক্রম পরিচালনা হচ্ছে তা দেশের অন্যান্য স্থানেও দৃষ্টান্ত হিসেবে কাজ করতে পারে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা